কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে ছেলের হাতে মা খুন

Share Button
image_137444.kumilla
রিপোর্টঃ-মোঃ সফিকুর রহমান সেলিম
ঢাকা, ০৮ অক্টোবর ২০১৪।
কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে ছেলের হাতে রোকেয়া বেগম (৪৫) নামের এক অভাগা মা খুন হয়েছেন। সোমবার পবিত্র ঈদুল আজহার দিন দুপুরে উপজেলার ঘোলপাশা ইউনিয়নের গুজরা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত রোকেয়া বেগমের স্বামী আবদুল মালেক সৌদি আরব প্রবাসী। স্থানীয় লোকজন মায়ের হন্তারক হায়াতুন্নবী (২৩) কে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, রোকেয়া বেগমের ২ ছেলে ২ মেয়ের মধ্যে হায়াতুন্নবী সকলের বড়। পিতা সৌদি আরবে থাকার সুবাধে বখাটে বখাটে তার মায়ের কোন কথাই শুনতো না। সে প্রতিদিন মাদক সেবন করতো বলে জানা যায়। এদিকে গত সোমবার ঈদের দিন মাদকদ্রব্য ক্রয়ের জন্য মা রোকেয়া বেগম এর কাছে টাকা চাইলে তিনি টাকা দিতে অপারগতা প্রকাশ করলে এসময় হায়াতুন্নবী ক্ষিপ্ত হয়ে তার হাতে থাকা ধারালো দা দিয়ে তার মাকে এলোপাথারি কুপিয়ে হত্যা করে। পরে স্থানীয় লোকজন মায়ের হন্তারক হায়াতুন্নবীকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে।
চৌদ্দগ্রাম থানার ওসি উত্তম কুমার জানান, মায়ের ঘাতক হায়াতুন্নবীকে আটক করে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।