নারী কেলেঙ্কারিতে জড়িয়ে দেশে ফিরছেন গ্রীসের রাষ্ট্রদূত

Share Button

93451_1

রিপোর্টারঃ-মোঃ সফিকুর রহমান সেলিম,ঢাকা
০৫ অক্টোবর ২০১৪

যৌন নির্যাতনের অভিযোগে মাথায় নিয়ে দেশে ফিরছেন গ্রীসে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত গোলাম মোহম্মদ। তার বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগের সত্যতাও পেয়েছে এ ব্যাপারে গঠিত তদন্ত কমিটি। আগামী ১৫ অক্টোবরের মধ্যে তাঁকে দেশে ফেরার নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মোহম্মদ শাহরিয়ার আলম বলেন,‘গ্রীসের রাষ্ট্রদূতের বিরুদ্ধে পাওয়া অভিযোগ প্রাথমিক তদন্তে প্রমাণিত হয়েছে।’ এ জন্য তাকে ১৫ অক্টোবরের মধ্যে ঢাকায় ফেরার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলেও তিনি জানিয়েছেন। ঢাকায় ফিরলে দেশের পক্ষ থেকে তার বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একাধিক উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা জানিয়েছেন, গ্রীসসহ বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূতের বিরুদ্ধে পাওয়া অভিযোগের সত্যতা মিললেও তাৎক্ষণিকভাবে ব্যবস্থা না নিয়ে সময় নিয়ে তাঁদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করছে সরকার। এতে বহির্বিশ্বে সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হচ্ছে বলেও তাঁরা মনে করছেন।

অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ার পর গ্রীসের রাষ্ট্রদূতকে দেশে ফেরার জন্য এক মাসের সময় দেওয়া হয়েছে। যার কোনও প্রয়োজন ছিল না বলেও তাঁরা দাবি করেছেন৷ দেশে ফেরার জন্য যে সব আনুষ্ঠানিকতার দোহাই দেওয়া হয়, তা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন বলেও মনে করেন তাঁরা।

জানা গেছে, আন্তর্জাতিক সংস্থা ইন্টারন্যাশনাল অর্গানাইজেশন ফর মাইগ্রেশন (আইওএম) এর গ্রীস অফিসে কর্মরত এক গ্রীক-বাংলাদেশী মহিলাকে যৌন হেনস্থা করেছেন গোলাম মোহম্মদ। আর এই নিয়ে সংস্থাটির মাধ্যমে ওই মহিলা বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে অভিযোগ দাখিল করেন।

অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে বিষয়টি খতিয়ে দেখার সিদ্ধান্ত নেয় বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। তারপরই তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। এই কমিটি তদন্তের উদ্দেশে গত আগস্টের দ্বিতীয় সপ্তাহে ঢাকা থেকে ঘটনাস্থল গ্রীসে উড়ে যান।

সেপ্টেম্বরের প্রথম সপ্তাহে তদন্ত কমিটি তাদের প্রতিবেদন দাখিল করে বাংলাদেশ সরকারের কাছে। তারপরই গ্রীসের ওই বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত গোলাম মোহম্মদের বিরুদ্ধে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়৷