সর্বশেষ সংবাদ :

ডিএনসিসি হাসপাতালে ২ জনের শরীরে করোনার ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট

Share Button

রিপোর্টার:-দৈনিক মুক্তকন্ঠ,
১৪ মে, ২০২১। সময : ১০:০১ PM

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) ডেডিকেটেড করোনা হাসপাতালে দুই রোগীর শরীরে ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট শনাক্ত হয়েছে। শুক্রবার (১৪ মে) হাসপাতালটির পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এ কে এম নাসির গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ‘ভারত থেকে আসা দু’জনের মধ্যে আমরা ভারতীয় ভ্যারিয়েন্টের করোনা ভাইরাস পেয়েছি। নির্দেশনা মোতাবেক তাদের টেস্ট হাসপাতালে (বক্ষব্যাধি হাসপাতাল) পাঠানো হয়েছে।’ ভারত থেকে যারা আসছেন তাদের কঠোর নজরদারির মধ্যে রাখা হচ্ছে বলেন তিনি।

ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট ছড়িয়ে পড়লে পরিস্থিতি ভয়াবহ হতে পারে উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, ‘সময়টা যেহেতু চ্যালেঞ্জিং, কোভিড রোগীদের নিয়ে কাজ করছি তাই প্রতি মুহূর্তেই নিজেদেরই আক্রান্ত হওয়ার আশংকা রয়েছে। কোভিড রোগীদের সঙ্গে কাজ করার অভিজ্ঞতা থেকে বলছি, আমাদের সবারই করোনা সম্পর্কে সচেতন হতে হবে, মাস্ক পরতে হবে এবং অন্যান্য স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে।’

সম্প্রতি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) জানিয়েছে, ভারতে প্রথম শনাক্ত ‘বি.১.১৬৭’ নামে করোনার ধরনটি বিশ্বের এক ডজনের বেশি দেশে পাওয়া গেছে। এমন দেশের সংখ্যা কমপক্ষে ১৭টির বেশি।

করোনার ভারতীয় ভ্যারিয়েন্টটি (ধরন) ‘বি.১.১৬৭’ যা অতি সংক্রামক বলে মনে করা হচ্ছে। ভারতে করোনার সংক্রমণ মারাত্মকভাবে ছড়িয়ে পড়ার ক্ষেত্রে এ ভ্যারিয়েন্টের ভূমিকা রয়েছে বলেও ভাবা হচ্ছে।

এর আগে ৮ মে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. এবিএম খুরশীদ আলম গণমাধ্যমকে জানিয়েছিলেন, দেশে ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট পাওয়া গেছে। এ ভ্যারিয়েন্টে আক্রান্ত রোগীরা ভারত থেকে ফিরেছেন। তারা চিকিৎসার জন্য ভারতে গিয়েছিলেন এবং বর্তমানে যশোরে অবস্থান করছেন।

ভারতে প্রথম শনাক্ত হওয়া করোনা ভাইরাসের এই স্ট্রেনকে ইংল্যান্ডের জনস্বাস্থ্য বিভাগ থেকে ‘উদ্বেগের রূপ’ হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। এটি অন্য স্ট্রেনগুলো থেকে আরও বেশি দ্রুত ছড়ায় বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

Comments are closed.

Scroll To Top
Bangladesh Affairs