সর্বশেষ সংবাদ :

মুখে ৫০টি সেলাই, তবু সিংহদের সঙ্গেই ‘বসবাস’!

Share Button

untitled-1_35670-290x300

বিনোদন ডেস্ক: বিখ্যাত হলিউড তারকা টিপ্পি হেডরেনের বাড়িতে তার পরিবারের সর্বক্ষণের সঙ্গী হিংস্র পশু!

রিপোর্টঃ-মোঃ সফিকুর রহমান সেলিম
ঢাকা, ১০ অক্টোবর ২০১৪।

সময়টা ষাটের দশকের শেষের দিক। অ্যালফ্রেড হিচককের বিখ্যাত ছবি ‘দ্য বার্ড’-এ অভিনয় করে টিপি হেডরেন তখন জনপ্রিয়তার তুঙ্গে। টিপ্পি-র স্বামী নোয়েল মার্শালও নামী পরিচালক। এছাড়া সংসারে সদস্য বলতে টিপ্পির প্রথম পক্ষের মেয়ে মেলানি গ্রিফিথ। মেলানিও গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কারজয়ী হলিউড তারকা। একটি ছবির কাজে ১৯৬৯ সালে হেডরেন ও তার স্বামী মার্শাল আফ্রিকা গিয়ে ছিলেন। সেখানেই তারা দেখেন একটি পরিত্যক্ত বাড়ি দখল নিয়েছে কয়েকশো সিংহ। মার্শালের মাথায় একটি চিন্তা ঘুরপাক খেতে শুরু করে তখন। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ফিরে মার্শাল ও হেডরেন দু’জনেই ঠিক করেন, সিংহের ওপরেই একটি সিনেমা তৈরি করবেন।

পশু প্রশিক্ষক রন অক্সলে-র থেকে তারা জানতে পারেন, সিংহের বিষয়ে জানতে গেলে, সিংহের সঙ্গে কিছুদিন বসবাস করতে হবে। ব্যস, যেমন ভাবা তেমনি কাজ। ক্যালিফোর্নিয়ার একটি প্রত্যন্ত এলাকায় বাড়ি কিনলেন হেডরনের পরিবার। তাদের বসবাস শুরু হল সিংহের সঙ্গে। সিংহই হয়ে ওঠে হেডরেনদের সর্বক্ষণের সঙ্গী। মার্শাল ছবিটির নাম দিয়েছিলেন ‘রোর’, অর্থাৎ গর্জন।

‘রোর’ রিলিজ করে ১৯৮১ সালে। পরবর্তীকালে আরও হিংস্র পশুদের নিয়ে মার্শাল তৈরি করেন আরও একটি ছবি। ছবির নাম ‘লায়ন্স, লায়ন্স অ্যান্ড মোর লায়ন্স’। ওই ছবিতে সিংহ ছাড়াও জাগুয়ার, চিতা, লেপার্ডের মতো পশুকেও দেখা যায়। এবং আশ্চর্যের বিষয় হল, কোনও পশুই কিন্তু প্রশিক্ষিত ছিল না।

তবে হিংস্র পশুদের নিয়ে বসবাস কিন্তু ঝুঁকি থাকবে না, তাতো হয় না। ছবি তৈরির সময়ই একটি সিংহির আক্রমণে গুরুতর আহত হয়েছিলেন হেডরেনের মেয়ে মেলানি। মুখে ৫০টির বেশি সেলাই করতে হয়েছিল। সিংহের আক্রমণে হাড় পিঠের কিছুটা অংশের হাড় ভেঙে গিয়েছিল সিনেমাটোগ্রাফার জ্যাঁ দে বন্টের। ছবির শ্যুটিং চলাকালীন সিংহের আক্রমণে সব মিলিয়ে আহতের সংখ্যা ছিল ৭০ জন।

কিন্তু শত আঘাত, ঝুঁকি সত্ত্বেও ছবিটি করতে গিয়েই পশুদের প্রেমে পড়ে যান অভিনেত্রী টিপ্পি হেডরেন। আজও ক্যালিফোর্নিয়ার ওই বাড়িতে ৭০টি হিংস্র পশুর সঙ্গে বাস করেন হেডরেন। পশুগুলির মধ্যে রয়েছে প্রয়াত পপ স্টার মাইকেল জ্যাকসনের কেনা রয়্যাল বেঙ্গল টাইগারটি-ও।

Comments are closed.

Scroll To Top
Bangladesh Affairs