বাংলাদেশের পরিস্থিতি গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করছে যুক্তরাষ্ট্র: হোয়াইট হাউস

Share Button

রিপোর্টার:-দৈনিক মুক্তকন্ঠ,
১০ ডিসেম্বর. ২০২২। সময :০৮.০০.PM.

বাংলাদেশের চলমান পরিস্থিতিতে উদ্বেগ জানিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টের দপ্তর হোয়াইট হাউস বলেছে, তারা বিষয়টি ‘খুব, খুবই গভীরভাবে’ পর্যবেক্ষণ করছে। চলমান উত্তেজনার মধ্যে এ বিষয়ে প্রথম কথা বলল হোয়াইট হাউস। এর আগে অবশ্য দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এবং ঢাকায় তাদের রাষ্ট্রদূত এ বিষয়ে তাদের অবস্থান জানিয়েছেন। খবর রয়টার্সের।

শুক্রবার হোয়াইট হাউসের জাতীয় নিরাপত্তাবিষয়ক মুখপাত্র জন কিরবি বলেন, বাংলাদেশের নাগরিকদের ভয়ভীতি, হুমকি, হয়রানি ও সহিংসতামুক্ত শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভে অংশ নেওয়ার অধিকারের প্রতি যুক্তরাষ্ট্র অব্যাহতভাবে সমর্থন জানিয়ে আসছে।

রয়টার্স জানায়, জন কিরবি সাংবাদিক ও মানবাধিকার কর্মীদের ওপর সহিংসতার ঘটনার স্বচ্ছ ও নিরপেক্ষভাবে পূর্ণ তদন্তে সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। একই সঙ্গে সব পক্ষকে সহিংসতা থেকে বিরত থাকতে বলেছেন।

এর আগে গত মঙ্গলবার যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তরের মুখপাত্র নেড প্রাইস বাংলাদেশে বিরোধী রাজনৈতিক নেতাকর্মীকে হয়রানি ও গ্রেপ্তারের ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্র এ দেশের সরকারকে মৌলিক বাক স্বাধীনতা রক্ষা এবং শান্তিপূর্ণ সভা-সমাবেশের অধিকারের প্রতি সম্মান দেখাতে আহ্বান জানিয়েছে।

নেড প্রাইস বলেন, ‘কোনো রাজনৈতিক দল কিংবা প্রার্থীকে হুমকি, উসকানি অথবা এক দল আরেক দল বা প্রার্থীর ওপর যাতে সহিংসতা ঘটাতে না পারে, বিষয়টি নিশ্চিত করতে আমরা সরকারের প্রতি আহ্বান জানাই।