আমি একা হয়ে গেছি: মেয়র আইভী

Share Button

রিপোর্টার:-দৈনিক মুক্তকন্ঠ,
২০ সেপ্টেম্বর. ২০২২। সময : ১০ ,০০.PM.

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের (নাসিক) মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভী একা হয়ে গেছেন বলে আক্ষেপ করে জানিয়েছেন, ‘আমি একা হয়ে গেছি। আমার কাউন্সিলররাও আপস করে চলে। নয়তো মামলার আসামি হয়ে যাবে।’

২০১৮ সালে নারায়ণগঞ্জে হকার ইস্যুতে ঘটে যাওয়া সংঘর্ষের ঘটনায় প্রশাসনের পক্ষ থেকে দায়ের করা মামলার বিষয় নিয়ে এমন আক্ষেপ করেন মেয়র আইভী। তিনি আরও বলেন, প্রশাসনের মামলায় রিপোর্ট দিয়েছে। সেখানে বলা হয়- এমন কোনো ঘটনা ঘটেনি। দিনদুপুরে প্রকাশ্যে মেয়রের ওপর পিস্তল উঁচিয়ে আক্রমণ। তারপরও বলে কিছু হয়নি। আপনারা সবাই চুপ। কারও সত্য বলার জোঁ নেই।

মঙ্গলবার (২০ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১টায় নগরীর বঙ্গবন্ধু সড়কের আলী আহাম্মদ চুনকা নগর পাঠাগার মিলনায়তনে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের বাজেট ঘোষণা অনুষ্ঠানে মেয়র এসব কথা বলেন।

এদিন নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন (নাসিক) ২০২২-২০২৩ অর্থবছরে ৫৮৮ কোটি ৬৯ লাখ ১০ হাজার ৬৩৮ টাকার বাজেট ঘোষণা করেন মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী; যা গত অর্থবছরের চেয়ে প্রায় ১০০ কোটি টাকা কম।

এদিকে নগরীজুড়ে চলমান লোডশেডিংয়ের মধ্যেই অনুষ্ঠিত বাজেট ঘোষণার মূল অনুষ্ঠান শুরু হওয়ার আগে মেয়র বক্তব্য দেওয়া শুরু করলে বিদ্যুৎ চলে যায়। এ ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করে মেয়র আইভি বলেন, আমার কোনো অনুষ্ঠান থাকলেই বিদ্যুৎ চলে যায়। এটা বারবার কেন আমার অনুষ্ঠানেই হয় আমি জানি না।

বাজেট অনুষ্ঠানে মেয়র আইভী জানান, করোনা মহামারির কারণে গত অর্থবছরের চেয়ে চলতি অর্থবছরে একশ কোটি টাকা বাজেট কম ধরা হয়েছে।

তিনি বলেন, প্রস্তাবিত বাজেটের মোট ৫৫৯ কোটি ৪৫ লাখ ২৬ হাজার ৪৭৯ টাকা ব্যয় ধরা হয়েছে। উদ্বৃত্ত থাকবে ২৯ কোটি ২৩ লাখ ৮৪ হাজার ১৫৯ টাকা।

মেয়র আইভী আরও বলেন, এবার আমাদের অর্থনৈতিক অবস্থা ভালো না। শুধু আমাদের একার নয় বরং পুরো পৃথিবীর অর্থনৈতিক চিত্রও একই রকম। আমাদের দাতা সংস্থা কত টাকা দিবে, সরকার কত দিবে, আমরা রাজস্ব থেকে কত টাকা পাব এসব হিসাব-নিকাশ করেই আমাদের বাজেট প্রণয়ন করতে হয়। তবে ঘাবড়ানোর কিছু নেই, আগামী ৬ মাসের মধ্যে যদি আমাদের অর্থনৈতিক অবস্থা ভালো হয় তবে সংশোধনী বাজেটের মাধ্যমে অর্থের পরিমাণ বাড়িয়ে নেওয়া হবে। এছাড়াও বন্ধ হয়ে যাওয়া প্রকল্পগুলো চলমান করা হবে।

মেয়র বলেন, বাজেটে বিশেষ বরাদ্দ রাখা হয়েছে রাস্তা, ড্রেন নির্মাণ, ব্রিজ ও কালভার্ট নির্মাণ, বৃক্ষ রোপণ, দারিদ্র বিমোচন, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা, জরুরি ত্রাণ, তথ্য-প্রযুক্তি, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, যানজট নিরসন, জলাবদ্ধতা দূরীকরণ, মশক নিধন, বর্জ্য ব্যবস্থাপনা আধুনিকীকরণ, খেলাধুলার মানোন্নয়নে মাঠ নির্মাণ, স্ট্রিট লাইট স্থাপন ও সুপেয় পানি সরবরাহ। এছাড়াও শীতলক্ষ্যাকে দূষণ থেকে বাঁচাতে বিশেষ গুরুত্ব দিবে নগর প্রশাসন।

বাজেট ঘোষণা শেষে উপস্থিত নাগরিকদের প্রশ্নের জবাবে মেয়র আইভী বলেন, আপনারা বলেছেন গত বছরের চেয়ে এই বছর একশ কোটি টাকার কম বাজেট ঘোষণা করা হয়েছে। আমি চাইলে হয়ত ১ হাজার কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা করতে পারতাম। কিন্তু এই বাজেট বাস্তবতার নিরিখে প্রদান করা হয়েছে। আমরা গত অর্থ বছরের বাজেটে ৯২ শতাংশ কাজ করেছি। প্রতি বছরই বড় বাজেট দিয়ে কাজ সম্পূর্ণ করা যায় না। তাই এবার বাজেট কিছুটা কম দেওয়া হয়েছে, যেন বাজেটের যথাযথ ব্যবহার নিশ্চিত করে শতভাগ কাজ শেষ করা যায়।

এ সময় নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা শহিদুল ইসলাম ও নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের ২৭টি ওয়ার্ডের সাধারণ ও সংরক্ষিত কাউন্সিলরসহ নগরীর বিশিষ্টজন ও গণমাধ্যমকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত, এর আগে ২০২১-২০২২ অর্থবছরে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের ৬৮৮ কোটি ২৩ লাখ ১৭ হাজার ৩৫৬ টাকার বাজেট ঘোষণা করেছিলেন নাসিক মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী। প্রস্তাবিত ওই বাজেটে রাজস্ব ও উন্নয়ন খাতে মোট ৬৮৮ কোটি ২৩ লাখ ১৭ হাজার ৩৫৬ টাকা আয় এবং ৬৭৭ কোটি ৪৯ লাখ ৭৩ হাজার ৩৪০ টাকা ব্যয় নির্ধারণ করেছিল নগর প্রশাসন।