আওয়ামী লীগ মানবাধিকার লঙ্ঘন করে না, সুরক্ষা দিয়েছে: প্রধানমন্ত্রী

Share Button

রিপোর্টার:-দৈনিক মুক্তকন্ঠ,
১৪ ডিসেম্বর. ২০২২। সময :০৮.০০.PM.

আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আওয়ামী লীগ সরকার এ দেশের মানুষের খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করেছে, চিকিৎসাসেবা মানুষের দোড়গোড়ায় পৌঁছে দিয়েছে, শিক্ষা নিশ্চিত করেছে, আয়ু বৃদ্ধি করেছে। এছাড়া অবকাঠামোর উন্নয়ন করেছে, গৃহহীনদের থাকার ঘর দিয়েছে, পার্বত্য অঞ্চলে শান্তি ফেরাতে চুক্তি করেছে। ভারত থেকে ৬৪ হাজার শরণার্থী ফেরত এনে পুনর্বাসন করেছে। কাজেই আওয়ামী লীগ মানবাধিকার লঙ্ঘন নয়, এর সুরক্ষা দিয়েছে।

বুধবার (১৪ ডিসেম্বর) বিকালে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে বুদ্ধিজীবী দিবস উপলক্ষে আওয়ামী লীগ আয়োজিত আলোচনা সভায় দলের সভাপতি এ কথা বলেন।বিএনপির সমালোচনা করে শেখ হাসিনা বলেন, বিএনপির লোকেরা গুম-খুন নিয়ে কথা বলে। অথচ এই দেশে গুম-খুনের কালচার শুরু করেছিলেন জিয়াউর রহমান। আমাদের শত শত নেতা-কর্মীকে গুম করেছে। ফাঁসি দেওয়ার সংস্কৃতিও তার। একদিনে দশজনকে ফাঁসি দিয়েছে। বিমান বাহিনীর ৫৬২ জন, সেনাবাহিনীর ২ হাজার অফিসার ও সৈনিককে হত্যা করেছে। তাদের পরিবারগুলো আজও আপনজনের জন্য কাঁদে। মরদেহের খবরটাও তারা পায়নি। এরপর কোন মুখে বিএনপি গুম-খুন নিয়ে কথা বলে।

শেখ হাসিনা বলেন, দেশবাসীর কাছে আমার প্রশ্ন- আমার পরিবারকে হারিয়েছি, হাজার হাজার আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীকে হত্যা করা হয়েছে, নির্মম নির্যাতন করা হয়েছে, গুম করা হয়েছে, একবারও কি ভেবেছেন তখন মানবাধিকার কোথায় ছিল।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, তারা (বিএনপি) জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর খুনিদের দূতাবাসে চাকরি দিয়েছে। তখন মানবাধিকার লঙ্ঘন হয়নি? এখন জঙ্গি, মাদক ব্যবসায়ী কারা মারা গেছে, সেটা নিয়ে তারা ব্যস্ত। আজকে বুদ্ধিজীবী দিবস আমরা পালন করি। বিএনপির কোনো কর্মসূচি আছে?

সভায় আরও বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ, আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক আফজাল হোসেন প্রমুখ।