সর্বশেষ সংবাদ :

ঈদে তারকারা কে কোথায়?

Share Button
76033_bino-1
বছরজুড়ে সময় যেমনই কাটুক ঈদ উৎসবের এই সময়টায় সবাই চান একটু ভিন্ন আমেজ, ভিন্ন পরিবেশ। এই চাওটায় যুক্ত পর্দার তারকারাও। এবার তারা কে কোথায় ঈদ করছেন সেই খবরাখবর নিয়ে প্রতিবেদনটি সাজিয়েছেন রিপোর্টারঃ-মোঃ সফিকুর রহমান সেলিম,ঢাকা
০৫ অক্টোবর ২০১৪

তাহসান-মিথিলা
তারকা দম্পত্তি তাহসান মিথিলা এবার ঈদ করবেন ঢাকায়। কোরবানি দিয়ে একমাত্র মেয়েকে নিয়ে সারা দিন ঘুরে বেড়াবেন। রাতে বাসায় ফিরে টিভি সেটের সামনে বসবেন অনুষ্ঠান দেখতে। তাহসান বলেন, বয়সের সাথে ঈদের আনন্দের পরিবর্তন আসে। একসময় ঈদের আনন্দ ছিল নিজের মতো করে ঘুরে বেড়ানো, বন্ধুদের সাথে আড্ডা দেয়া, এখন মেয়েকে নিয়ে ঘুরতে পারলে অনেক বেশি আনন্দ পাই।’ মিথিলার কাছেও ব্যাপারটি একই রকম। তিনি বলেন, সময়ের সাথে নিজেকে পরিবর্তন করতে পারাটার নামই আনন্দ। সব পাঠককে ঈদ মোবারক।
শাকিব খান
রুপালি পর্দার সবচেয়ে জনপ্রিয় নাম শাকিব খান এবার ঈদ করবেন কাতারে। প্রবাসী বাংলাদেশীদের আমন্ত্রণে একটি অনুষ্ঠানে অংশ নিতে আজ ঢাকা ছাড়বেন তিনি। শাকিব বলেন, ঈচ্ছে ছিল দেশেই ঈদ করার, কিন্তু শেষ পর্যন্ত সেটা বাস্তবায়ন হলো না প্রবাসীদের চাপে, সারা বছর ধরেই নাকি তারা আমার জন্য অপেক্ষা করেন ঈদটা এক সাথে করবেন বলে। এবার ঈদে আমার তিনটি ছবি মুক্তি পাবে। ছবিগুলো দিয়ে দেশের সবার সাথেই থাকব। কিন্তু ওখানকার বাংলাদেশীদের হলে গিয়ে আমার ছবি দেখার সুযোগ নেই। তাই ওদের ইচ্ছেকে প্রাধান্য দিচ্ছি। আশা করি সবার সাথে মিলেমিশে ভালো একটি ঈদ হবে এবার। সবাইকে হলে বসে সিনেমা দেখার আমন্ত্রণসহ ঈদ মোবারক।
অপু বিশ্বাস
ঈদ এবং পূজা দুই উৎসবেই সমান আনন্দ করেন অপু বিশ্বাস। গ্রামের বাড়ি বগুড়া এবং বর্তমান আবাস্থল ঢাকায় প্রিয় মানুষদের সাথে উৎসবের আনন্দ ভাগ করে নেন তিনি। সাত দিনব্যাপী দুর্গাপূজা গতকাল বিসর্জনের মধ্য দিয়ে শেষ হয়েছে। আজ বিরতি দিয়ে আগামীকাল শুরু হচ্ছে ঈদ। অপু এ উৎসবেও আনন্দ করেন পূজার মতোই। ঈদ উপলক্ষে এবার শাকিব খানের যে তিনটি ছবি মুক্তি পাচ্ছে, তার সবগুলোতেই নায়িকা হিসাবে থাকছেন, তাই এবারের ঈদ অন্যবারের চেয়ে ব্যতিক্রম হবে বলেই আশা করছেন তিনি। অপু বলেন, ‘সবার আশীর্বাদে বিগত কয়েক বছরের ধারাবাহিকতায় এবারো ঈদে মুক্তির তালিকায় আমার অভিনীত ছবিগুলোর সংখ্যা বেশি। দর্শক ছবিগুলো দেখে যদি ঈদ আনন্দ বাড়িয়ে নিতে পারেন, তবেই আমি সার্থক।’ অপু বলেন, ‘ঈদে এবার দেশে থাকা হচ্ছে না। প্রবাসীদের আমন্ত্রণে একটি অনুষ্ঠানে অংশ নিতে আগামীকাল (আজ) কাতার যাচ্ছি। সবাই প্রেক্ষাগৃহে গিয়ে সিনেমাগুলো দেখবেন ভালোমন্দ সমালোচনা করবেন। সবাইকে ঈদ মোবারক।’
আঁচল
গ্রামের বাড়ি খুলনার খালিশপুরে ঈদ করার ইচ্ছে ছিল অভিনেত্রী আঁচলের। আত্মীয়স্বজনদের সাথে দেখা হবে, সমবয়সীদের সাথে আনন্দ হবেÑ এমনটিই চিন্তা ছিল তার। কিন্তু এখন ঈদ পরিকল্পনা সাজাতে হচ্ছে নতুন করে। আঁচল বলেন, ঈদে মুক্তি পাবে আমার অভিনীত কিস্তিমাত ছবিটি। কলাকৌশলীদের সাথে মুক্তির দিন থেকেই বিভিন্ন হলে গিয়ে সিনেমাটি দেখব। তাই এবার গ্রামের বাড়ি যাওয়ার পরিকল্পনা বাদ দেয়া হয়েছে। ঈদে ছবি মুক্তি পাচ্ছে এটা আমার জন্য এবার সবচেয়ে বড় খুশি। দর্শক যদি ছবিটি দেখে ঈদের আনন্দ কিছুটা বাড়িয়ে নিতে পারেন, আমার আনন্দের মাত্রা বেড়ে যাবে বহু গুণে।’ আঁচল ছাড়া এবার ঈদে মুক্তিপ্রাপ্ত কোনো ছবিরই প্রধান তারকা দেশে থাকছেন না। তাই ছবির প্রচারণায় এবার আঁচলই সবার থেকে এগিয়ে থাকবেন। আঁচল বলেন, ‘কে কোথায় সেটা নিয়ে আমি ভাবছি না। আমি আমার দায়িত্ব পালন করব। এতে দর্শক ছবি দেখার প্রতি অনুপ্রাণিত হলেই আমার সার্থকতা। সবাইকে ঈদ মোবারক।’
মাহিয়া মাহী
গত কয়েক বছরের তুলনায় মাহিয়া মাহী এবার কিছুটা নিরুত্তাপ। ঈদ করবেন ভারতে। সেখানে তিনি যৌথ প্রযোজনার ছবি ‘রোমিও জুলিয়েট’ নিয়ে ব্যস্ত থাকবেন। শোবিজ অঙ্গনে পা রাখার পর ঈদে সময়ের আলোচিত নায়িকা মাহিয়া মাহী অভিনীত কোনো না কোনো ছবি ছিল। গত রোজার ঈদেও তার অভিনীত হানিমুন মুক্তি পেয়েছে। কিন্তু এবারের ঈদে মাহি থাকছেন না। তার অভিনীত ওয়ার্নিং ছবিটি ঈদে আসবে আসবে বলেও শেষ মুহূর্তে না আসার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আরেক ছবি দেশা দ্য লিডারও ঈদে আসবে না বলে অনেক আগেই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ফলে মাহী অভিনীত কোনো ছবিই এবারের ঈদে থাকছে না। মাহী বলেন, ঈদে ছবি মুক্তি না পাওয়াটা দুর্ভাগ্যজনক। ছবি মুক্তির বিষয়টি নির্ভর করে প্রযোজকদের ওপর। তারা প্রয়োজন মনে করেননি, তাই ছবি মুক্তি দেননি। তবে আমার ছবি না থাকলেও বাকি যে ছবিগুলো মুক্তি পাচ্ছে সেগুলো হলে গিয়ে দেখবেন দর্শক, সেই প্রত্যাশা করি।’
এ ছাড়া বাপ্পী আরিফিন শুভসহ বেশ কয়েকজন তারকা এখন অবস্থান করছেন ভারতে। ঈদের দিন তারা সেখানেই থাকবেন। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকের মাধ্যমে তারা ভক্তদের ঈদ মোবারক জানিয়েছন।
পরীমণি
তালিকায় মুক্তিপ্রাপ্ত ছবি নেই একটিও। তার পরও বেশ আলোচনায় এখন পরীমণি। চলতি বছরের জুলাই মাসে মুক্তি পাওয়ার কথা ছিল তার রানা প্লাজা ছবিটি। তথ্য বিভ্রাটের অভিযোগে ছবিটি আটকে আছে সেন্সর বোর্ডে। তারপর বেশ কিছু দিন বিরতি দিয়ে এবার ঈদে মুক্তি পাওয়ার কথা ছিল ‘পাগল দেওয়ানা’। এবার বাধা হয়েছেন পরিচালক ওয়াজেদ আলী সুমন। কারণ তার পরিচালিত হিটম্যান ছবিটি মুক্তি দেয়া হচ্ছে ঈদে। ব্যবসায়িক কারণেই একই পরিচালক দুই ছবি মুক্তি দেবেন না একই ঈদে। বিষয়টিকে সহজভাবে দেখছেন পরীও। তিনি বলেন, ঈদের পরই পাগলা দেওয়ানা ছবি মুক্তি দেয়া হবে। আমি সে অপেক্ষায়ই আছি।’ এ দিকে গতকালই পিরোজপুরের ভাণ্ডারিয়ায় চলে গেছেন পরী। সেখানে তার নানুর বাড়ি। আত্মীয়স্বজনদের সাথে সেখানেই ঈদ করবেন তিনি। পরী বলেন, ঈদের দিন সবাই ওঠেন ভোরে, আর আমি উঠি ১০টা ১১টায়।’ কী কারণ? ‘ঈদের আগের রাতকে আমরা বলি মেহেদি রাত। ছোটবেলা থেকেই আমি ভালো নকশা করতে পারি। রাতব্যাপী আমি সবার হাতে মেহেদি লাগিয়ে দিই। শেষ রাতে এসে মনটা খারাপ হয়ে যায়। কারণ তখন আমার হাতে মেহেদি লাগিয়ে দেয়ার মতো কেউ থাকে না। … সবাইকে ঈদ মোবারক।’
জাহিদ হাসান
নাট্যাঙ্গনে জাহিদ হাসান নামটি দেড় দশক ধরে জনপ্রিয়তার শীর্ষে অবস্থান করছে। এবারো ঈদে নাটক ও টেলিফিল্মে দেখা যাবে জনপ্রিয় এই তারকাকে। ঈদ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘ঈদের সব আনন্দ কাটাতে চাই আমার মায়ের সাথে। আর বন্ধুদেরও সময় দিতে চাই। ঈদের দিন মায়ের কাছে থাকাটাই আমার কাছে সবচেয়ে বড় আনন্দের। তাই প্রতিবারের মতো ঈদে গ্রামের বাড়ি সিরাজগঞ্জেই থাকব। সেখানেই কোরবানি দেবো। মায়ের হাতের রান্না খেতে আমি খুব ভালোবাসি। এবারো সেই সুস্বাদু খাবারের অপোয় আছি। সবাইকে ঈদ মোবারক।’
তিশা
চটপটে স্বভাবের তিশা। ভিন্নভাবে অভিনয় করে দর্শকদের মনে জায়গা নিয়েছেন। খুব সহজেই যেকোনো বিষয় সাবলীলভাবে উপস্থাপন করতে পারেন তিনি। ঈদ ভাবনা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘ছোটবেলায় ঈদের সময় অনেক ঘুরতাম। কিন্তু এখন আর সেভাবে ঘোরা হয় না। আসলে পারি না। আমার কাজের চাপ তো আছেই, ফারুকীরও একই অবস্থা। একসাথে দু’জনের অবসর খুব কমই মেলে। বিয়ের আগে একভাবে ঈদ করতাম, এখন অন্যভাবে করি। আগে ছিলাম মায়ের মেয়ে, এখন বাড়ির বউ। দায়িত্বও তাই একটু বেশি। এবারের ঈদ ঢাকাতেই করব। ঈদের দিন শ্বশুরবাড়িতে বেড়াতে যাব। আম্মার সাথেও দেখা করব। আড্ডা হবে, খাওয়া-দাওয়া হবে। তবে ঈদের পর-পরই আবার শুটিং শুরু হয়ে যাবে। তাই অবসর খুব বেশি মিলছে না। সবাইকে ঈদের শুভেচ্ছা।’
অপূর্ব
অপূর্বের এবারের ঈদটা হবে অন্য রকম। কারণ কিছু দিন আগেই তিনি বাবা হয়েছেন। ঈদ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আমি ঈদে ঢাকাতেই থাকি। ঈদে বন্ধুদের নিয়ে ঘোরার বেশ কিছু মজার স্মৃতি আছে। আগে তো পড়াশোনার চাপে সচরাচর কোথাও ঘুরতে যাওয়া হতো না। ঈদ এলে সেই সুযোগটা পেতাম। ঈদের সময়টা আমার জন্য একেবারে আলাদা। সারা দিন শুধু ঘুরে বেড়াতাম। ঢাকার অলিগলি চষে বেড়াতাম। বাবার কাছ থেকে কিছু পকেট মানি নিয়ে নিতাম। সেলামির টাকা তো থাকতই। ঘুরতে ঘুরতে সেই টাকায় পছন্দের খাবার কিনতাম। তবে ঢাকার বাইরে ঘুরতে যাওয়া হতো না। এবারের ঈদও ঢাকায় করব। কোরবানি দিয়ে আত্মীয়স্বজনের বাড়িতে হয়তো যাব। তবে ক’দিন আগেই যেহেতু আমি বাবা হয়েছি, তাই এবারের ঈদের অনুভূতিটা অনেক বেশি অন্যরকম আমার জন্য।’
জাকিয়া বারী মম
মমও ঈদ করবেন ঢাকায়। এ প্রসঙ্গে বলেন, ‘এবার ঢাকার বাইরে ঈদ করার পরিকল্পনা ছিল কিন্তু ঈদের পরদিন থেকেই আবার কাজ। ইচ্ছে থাকলেও তাই কোথাও যাওয়া হচ্ছে না।
ছোটবেলায় প্রতি ঈদেই নানাবাড়ি বেড়াতে যেতাম। সমবয়সীদের সাথে ড্রেস নিয়ে প্রতিযোগিতা চলত। জামা-কাপড়ের তুলনায় ঈদের জুতার ব্যাপারে আমার একটু বেশি আগ্রহ ছিল। অন্যগুলো আর যা-ই হোক, যেনতেন জুতা আমি কখনোই নিতাম না। পোশাকের সাথে মিল রেখে জুতা কিনতাম। কেউ জুতায় হাত দিলে রঙ নষ্ট হওয়ার ভয়ে আমি নতুন জুতা নিয়েই রাতে ঘুমাতাম। নানাবাড়িতে বেড়াতে গেলে অনেক মজা হতো।’
বাঁধন
ঢাকার মিরপুরে মায়ের সাথে ঈদ করবেন বাঁধন। তিনি বলেন, ‘শুটিংয়ের কারণে পরিবারকে ঠিকমতো সময় দিতে পারি না। এ বিষয়ে শ্বশুরবাড়ি থেকে অনুযোগের শেষ নেই। তাই ঈদের সময়টুকু পরিবারের সাথে থেকে তার দায় কিছুটা কমাতে চাই। আগে ঈদ ছিল নিজের আনন্দের জন্য। সেই আনন্দ এখন মহাদায়িত্বে পরিণত হয়েছে। এই দায়িত্বের জায়গা থেকেই আমি আমার পরিবারের সাথে ঈদের সময়টুকু কাটাতে চাই। ঈদের দিন সকাল থেকে রাত পর্যন্ত আমি আমার মেয়ের সাথে থাকতে পারব, এটাই আমার ঈদ আনন্দ। তবে ঈদে রান্নার কিছু ঝামেলা থাকে, সেটাও করতে হবে। তবুও তো আমার মেয়েটা আমার কাছে থাকবে। সবার জন্য ঈদের শুভেচ্ছা রইল। ঈদ মোবারক।’

Comments are closed.

Scroll To Top
Bangladesh Affairs