সর্বশেষ সংবাদ :

আজকের ‘হরতাল’ বড় মারাত্মক

Share Button

dhaka-faka_200033

দৈনিক মুক্তকন্ঠ রিপোর্ট:
প্রকাশ: ০৫ জানুয়ারী, ২০১৫

সকাল সাড়ে ৯টা। আজিমপুর বাসস্ট্যান্ড। গন্তব্যে যেতে দাঁড়িয়ে আছেন শত শত মানুষ। একটি পরিবহনের আশায় তীর্থের কাকের মতো চেয়ে আছেন সবাই। দাঁড়িয়ে থাকা লোকজনের কাছে এগিয়ে গিয়ে এই প্রতিবেদক জানতে চাইলে তাদের একজন বলেন, ‘কোথায় আর যাবো ভাই। মিরপুর যাওয়ার জন্য দাঁড়িয়ে আছি। কিন্তু গাড়ি তো পাচ্ছি না। আজকের হরতাল বড় মারাত্মক।’

আজ সোমবার বিরোধী দল কোনো হরতাল ডাকেনি। তবে ৫ জানুয়ারিকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির যুদ্ধংদেহী কর্মসূচি সাধারণ মানুষকে বিপাকে ফেলেছে। বিএনপির সমাবেশ বানচাল করতে সরকার গণপরিবহণ বন্ধ করে দিয়েছে। তবে সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, তারা এ ধরনের কোনো ব্যবস্থা নেয়নি।

শুধু আজিমপুর বাসস্ট্যান্ড নয়, আজকে রাজধানীর প্রতিটি বাসস্ট্যান্ডের পরিস্থিতি একই। অফিসগামী মানুষকে পড়তে হয়েছে অঘোষিত হরতালের ফাঁদে।

নিকট অতীতের হরতালে নগরীতে গণপরিবহণে তেমন প্রভাব পড়তে দেখা যায়নি। কিন্তু আজ হরতালের কোন কর্মসূচি না থাকলেও গণপরিবহন বন্ধ রয়েছে। এতে চরম ভোগান্তিতে পড়তে হয়েছে সাধারণ মানুষকে।

রাজধানীর নীলক্ষেত মোড়ে দাঁড়িয়ে থাকা আমজাদ নামে এক পথচারী বলেন, ‘আজকে সরকারি প্রহরায় হরতাল পালন হচ্ছে। দুই দল নিজেদের মধ্যে যা করার করুক, কিন্তু সাধারণ মানুষকে কষ্ট দেয়ার কোন মানে হয় না। জানি না কোন দেশে আমরা বসবাস করছি ।’

পল্টন মোড়ে পথচারী আব্দুল কালাম বলেন, এতোদিন জানতাম বিরোধীদল হরতাল করে, আজকে সরকারি দল হরতাল পালন করছে। আরও যে কত কিছু দেখবো।’

সকাল থেকে কুড়িল, বিশ্বরোড, মহাখালী রামপুরা, মিরপুরসহ রাজধানীর কয়েকটি এলাকা ঘুরে দেখা যায়, পুলিশের পাশাপাশি ছাত্রলীগ যুবলীগ কর্মীরা সাধারণ মানুষের দেহ তল্লাসী করছে। তারা যান চলাচলেও বাধা দিচ্ছে।

Comments are closed.

Scroll To Top
Bangladesh Affairs