সর্বশেষ সংবাদ :

বুড়িচংয়ে বাস-সিএনজি অটোরিক্সা সংঘর্ষে নিহত ৪

Share Button

সূচিপত্রjhf

রিপোর্টঃ-মোঃ মহিউদ্দিন লিটন
কাজিরগাও,কুমিল্লা, ০২ জানুয়ারী, ২০১৫

বুড়িচংয়ে যাত্রীবাহী বাস ও সিএনজি অটোরিক্সার মুখোমুখী সংঘর্ষে ৪ জন নিহত ও ২জন আহত হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুর পৌঁনে ১টায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার পরিহলপাড়া কবরস্থান এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর বিক্ষুব্ধ জনতা ঘাতক বাসটিতে অগ্নিসংযোগ করে। জানা যায়, জামায়াতের ডাকা হরতালের দ্বিতীয় দিনে দেশের ব্যাস্ততম ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে যান চলাচল কম ছিল। হরতাল উপেক্ষা করে যেসব গাড়িগুলো চলছে সেগুলোর গতি ছিল বেপরোয়া। বৃহস্পতিবার দুপুর পৌঁনে ১টায় কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার পরিহলপাড়া কবরস্থান এলাকায় ঢাকাগামী যাত্রীবাহী এশিয়া লাইন পরিবহনের একটি বাস ও বিপরীত দিক থেকে আসা কুমিল্লা গামী যাত্রীবাহী সিএনজি অটোরিক্সার মুখোমুখী সংঘর্ষে ৪জন নিহত হয়।
এ ঘটনায় গুরুতর আহত হয় আরও ২জন। আহতদের উদ্ধার করে কাবিলা এলাকার  ইষ্টার্ণ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসার পর উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালে পাঠানো হয়েছে।
ঘটনাস্থলে নিহতরা হলেন- কুমিল্লা জেলার আদর্শ সদর উপজেলার ঘোড়ামাড়া এলাকার আব্দুল করিম এর ছেলে সিএনজি অটোরিক্সা চালক রনি (৩৫) , একই জেলার বুড়িচং উপজেলার কাকিয়ারচর গ্রামের জয়নাল আবেদীন এর ছেলে ইব্রাহীম খলিল (৪৩)।
অন্য নিহত বুড়িচং উপজেলার মাধবপুর গ্রামের অহিদুল ইসলাম মেয়ে নিলুফা আক্তার (২৬), অজ্ঞাত আরও একজন পুরুষ(২৫) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় । আহতরা হলেন- নিহত নিলুফা আক্তারের মেয়ে আঁখি আক্তার (১০), আমির হোসেন এর মেয়ে সুরভী (১০)। এদের মধ্যে আঁখি আক্তার ও সুরভী এবারের পিএসসি পরীক্ষায় জিপিএ পাচ পেয়ে পাশ করেছে।
এদিকে ঘটনার পরপর উত্তেজিত বিক্ষুদ্ধ জনতা ঘাতক এশিয়া লাইন পরিবাহনের বাসটিতে অগ্নিসংযোগ করে। জনতার দেয়া আগুনে মুহুর্তেই পুরো বাসটিতে পুড়ে যায়। প্রায় এক ঘন্টা পর কুমিল্লা ফাঁয়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে।

খবর পেয়ে বুড়িচং উপজেলার নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) আ.ন.ম নাজিম উদ্দিন, কুমিল্লা জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এ.এস.পি) জাহাঙ্গীর আলম, শাহজাহান মিয়া, আশরাফ হোসেন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

Comments are closed.

Scroll To Top
Bangladesh Affairs