সর্বশেষ সংবাদ :

সরকার চাপে আছে : ফখরুল

Share Button
মির্জা-ফখরুল
রিপোর্টঃ-মোঃ সফিকুর রহমান সেলিম
ঢাকা, ২৯ ডিসেম্বর, ২০১৪।
বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর অভিযোগ করেছেন, সরকার সহিংসতা ছড়িয়ে সাধারণ মানুষের জীবনহানী করে হরতালকারীদের উপর দায় চাপানোর ষড়যন্ত্র করছে। তিনি বলেন, সরকারের কর্মকাণ্ড প্রমাণ করে তারা চাপের মুখে আছে।

সোমবার ২০ দলীয় জোটের দেশব্যাপী সকাল-সন্ধ্যা হরতাল শেষে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, বিরোধী দলকে আন্দোলন থেকে সরাতে জনগণের দৃষ্টি ভিন্ন দিকে ঘোরাতে সরকার পরিকল্পনা করছে। সরকার ও তাদের এজেন্টরা যানবাহন ও সাধারণ মানুষের উপর হামলা চালাচ্ছে।নোয়াখালীতে স্কুল শিক্ষিকা শামসুন্নাহারকে সরকারের এজেন্টরা হত্যা করেছে।

এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করে তার আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন তিনি।

ফখরুল বলেন, হরতালে ব্যাপক জনসমর্থন থাকবে মনে করে ক্ষমতাসীনরা বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের উপর ঝাঁপিয়ে পড়েছে। বিভিন্ন জায়গায় মিছিলের উপর পুলিশ গুলি চালিয়েছে। সারাদেশ থেকে ৩৪২ জনকে গ্রেফতার করেছে।

তিনি বলেন, সরকার বাক স্বাধীনতাকে ভয় পায়।যে কারণে তারা গণমাধ্যমের উপর হামলা চালিয়েছে।সরকারের ভয়ভীতি দেখানো সত্ত্বেও নিউ এইজ সম্পাদক নুরুল কবিরকে তার সত্য কথন থেকে সরানো যায়নি।সেজন্য পুলিশ রবিবার নিউ এইজে হানা দিয়েছে। বিএনপির পক্ষ থেকে তিনি এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান।

তিনি বলেন, ছাত্রলীগ, যুবলীগ আ’লীগ যে ভাষায় কথা বলছে, তা সভ্য সমাজের ভাষা হতে পারে না।সরকারের নির্দেশে অনুগত পুলিশ বিএনপির নেতাকর্মীদের মিছিলে নির্বিচারে গুলি চালিয়েছে। মিরপুরের পল্লবীতে স্বেচ্ছাসেবক দল ও বিএনপির শান্তিপূর্ণ মিছিলে গুলি চালিয়ে গুলিবিদ্ধ স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতা স্বপনকে পুলিশ তুলে নিয়ে গেছে।

স্বতস্ফুর্তভাবে শান্তিপূর্ণ হরতাল পালন করায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া, বিএনপি ও ২০ দলীয় জোটের পক্ষ থেকে দেশবাসীকে অভিনন্দন জানান।

সংবাদ সম্মেলনে যুগ্ম মহাসচিব রিজভী আহমেদ, দলীয় নেতা আব্দুস সালাম, সাম্যবাদী দলের কমরেড সাইদ আহমেদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

Comments are closed.

Scroll To Top
Bangladesh Affairs