সর্বশেষ সংবাদ :

গুড মর্নিং ম্যাডাম ____মুকুল খান।সম্পাদকীয়

Share Button
309892_422235337856210_194752672_nm
সম্পাদকীয় :————— মুকুল খাঁন
সিডনি, অষ্টেলিয়া , ২৭ ডিসেম্বর, ২০১৪।
গুড মর্নিং ম্যাডাম
__________মুকুল খান

গুড মর্নিং ম্যাডাম, আজ সত্যি সত্যি সকালটা শুভ এবং সুন্দর হতে পারতো। কিন্তু হয়নি। হবার কথা থাকলেও মাঝে মাঝে কথা রাখা যায় না, এই কথা কে না জানে। আমি জানি, আপনি জানেন, জানে পাড়া প্রতিবেশি আর জানে বাংলাদেশের হাজার নির্যাতিত জনগন। জানে সেই ছেলেটি যে কিনা আজ মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে ঢাকার এক অজানা ক্লিনিকে। অপেক্ষায় আছে। আপনি প্রশ্ন করতে পারেন কিসের অপেক্ষা? উত্তর হল, গণতন্ত্রের, স্বাধীনতার। আপনি হয়তো বলবেন আমরা তো স্বাধীন, তাহলে
কোন ধরনের স্বাধীনতার কথা সে বলছে! আপনি হয়তো আপনার হাজারও কাজের ব্যস্ততায় ভুলে যাবেন এই সকালের কথাগুলি।

ম্যাডাম, আপনি হয়তো জানেন যা আমরা জানি না। কিন্তু বলতে পারেন, কেন আপনারা গাজীপুর না গিয়ে হরতাল ডাকলেন? কে বা কারা সেই নপুংসক, যে/যারা আপনাকে এই সব বুদ্ধি দিয়ে এই আন্দোলনকে অঙ্কুরেই ধ্বংস করে দিতে চায়? বকশীবাজারে গিয়ে ছাত্রদলের যে ছেলেগুলি মার খেল তাদের ত্যাগের কি কোন মূল্য নেই? বাদ দিলাম ছাত্রদলের অগনিত শহীদদের গল্পগাঁথা। অপরিকল্পিত আন্দোলনের জন্য দল দুর্বল হয়, এই কথা মাথায় রেখে আমাদের হাতে যথেষ্ট সময় ছিল গাজীপুরের ছক
সাজানোর। কিন্তু আমরা তাতেও সফল হইনি। কিন্তু কেন?

আজ আন্দোলনের এই মুহূর্তে হরতাল ডেকে নিজেদের সাঙ্ঘটনিক দীনতার বহিঃপ্রকাশ না করলেই কি ভালো হতো না? গাজীপুরে গেলে নিজেদের কর্মীদের মনে যে জোয়ার বইত তাকে বসে আনা আওয়ামী পুলিশের পক্ষে কখনও সম্ভব হতো না বলেই আমার বিশ্বাস। নিজেদের সাঙ্ঘটনিক দুর্বলতা ঢাকার জন্য যারা হরতাল ডাকে তাদের চিহ্নিত করা না গেলে এই আন্দোলনের ভবিষ্যৎ অন্ধকার। যারা আন্দোলনের সময় মাঠে না থাকার প্রত্যয়ে হরতাল ডেকে ঘরে বসে থাকে তাদের চিত্নিত করতে হবে, আন্দোলন থেকে দূরে রাখতে হবে।

শুরু করেছিলাম ম্যাডাম শুপ্রভাত দিয়ে। শেষ করতে হল হতাশা দিয়ে। যদি বলেন কিসের হতাশা? তাহলে বলবো বিএনপির রাজনীতি নিয়ে দারুন হাতাশা।

Comments are closed.

Scroll To Top
Bangladesh Affairs