সর্বশেষ সংবাদ :

কুমির, ডলফিন মৃত্যুর প্রমাণ পায়নি: তদন্ত কমিটি

Share Button

Sundarban-Indestigation-UP

কুমির, ডলফিন মৃত্যুর প্রমাণ পায়নি: তদন্ত কমিটি

 রিপোর্টঃ-মোঃ সফিকুর রহমান সেলিম
ঢাকা, ১৮ ডিসেম্বর, ২০১৪।

তেল ট্যাঙ্কার দুর্ঘটনার পর শ্যালা নদীর চ্যানেল স্থায়ীভাবে বন্ধ করে দিয়ে বিকল্প চ্যানেল চালুর সুপারিশ করলো সংসদীয় কমিটি। এদিকে, মন্ত্রণালয়ের গঠিত তদন্ত কমিটি প্রতিবেদন চূড়ান্ত করে এনেছে। কমিটির আহ্ববায়ক নুরুল করিম এ জানিয়ে বলেন, সুন্দরবনে কুমির ও ডলফিন মারা যাওয়ার দৃশ্য দেখেনি তদন্ত কমিটি।

সমুদ্রপথে মংলা বন্দরে ঢুকতে সুন্দরবনের ভেতর দিয়ে একমাত্র পথ শ্যালা নদী।
তেলের ট্যাংকার ডুবেছে এই নদীতে।
আরেকটি পথ ঘষিয়াখালি মুড়ালগঞ্জ চালু ছিল কিছুদিন আগে পর্যন্ত। নাব্যতার অভাবে এখন সেটি বন্ধ।

এখন দুর্ঘটনার পর থেকে বন্ধই আছে শ্যালা চ্যানেল।

পরিবেশ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি মনে করেন, শ্যালা নদীর ভেতর কিছুতেই নৌযান চলাচল করতে দেওয়া যাবে না। ঘষিয়াখালি চ্যানেল দিয়ে নৌ চলাচল আবার চালু করতে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ে সুপারিশ করেছে সংসদীয় কমিটি।

ট্যাঙ্কার ডুবির ঘটনায় পরিবেশ মন্ত্রণালয়ের গঠিত তদন্ত কমিটির প্রধান নুরুল করিমও বলেন, প্রতিবেদনে এ সুপারিশটি থাকতে পারে। যদিও তিনি বলেন, তদন্ত কমিটি সুন্দরবনে কুমির ও ডলফিন মারা যাওয়ার কোনো দৃশ্য দেখেনি।

মন্ত্রী মনে করেন, দেশের প্রেক্ষাপটে সুন্দরবনের ঘটনাটি বড় হলেও আন্তর্জাতিকভাবে এটা তেমন কিছু না।

– See more at: http://independent24.tv/2014/12/18/%e0%a6%95%e0%a7%81%e0%a6%ae%e0%a6%bf%e0%a6%b0-%e0%a6%a1%e0%a6%b2%e0%a6%ab%e0%a6%bf%e0%a6%a8-%e0%a6%ae%e0%a7%83%e0%a6%a4%e0%a7%8d%e0%a6%af%e0%a7%81%e0%a6%b0-%e0%a6%aa%e0%a7%8d%e0%a6%b0%e0%a6%ae/#sthash.dp23apus.dpuf

Comments are closed.

Scroll To Top
Bangladesh Affairs