সর্বশেষ সংবাদ :

আগে মামলা থেকে খালাস হন, পরে আন্দোলন : বিএনপি নেতাদের উদ্দেশ্যে কামরুল

Share Button

image_60455_0

রিপোর্টারঃ-মোঃ সফিকুর রহমান সেলিম,ঢাকা
০৩ অক্টোবর ২০১৪

খাদ্যমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম বিএনপি নেতাদের আন্দোলন না করে ভালো আইনজীবী রেখে যে সকল মামলা আছে এবং আগামীতে হবে, সেগুলো থেকে খালাস পেতে পরামর্শ দিয়েছেন । প্রধানমন্ত্রীর ৬৮তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে শিল্পকলা একাডেমীতে ‘শেখ হাসিনা বাঙালির আলোকবর্তিকা’ শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি এমন পরামর্শ দেন।

বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের এ আলোচনা সভায় কামরুল বলেন, ‘আপনারা আন্দোলনের হুমকি দেন। আন্দোলন কাকে বলে এটা আমরা জানি। হুমকি দিয়ে লাভ নেই। যে মামলাগুলো আছে এবং আগামীতে হবে, সেগুলো থেকে খালাস পাওয়ার চেষ্টা করেন।’

তিনি বলেন, ‘আবার নতুন করে দুর্ভোগ সৃষ্টি করবেন না। এখন আর নতুন কোনো ইস্যু তৈরির চেষ্টা করলেও সেটা পারবেন না।’

ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের এ যুগ্ম-সম্পাদক বলেন, ‘অনেকদিন ধরে আমরা রাজপথে নেই। এজন্য আমাদের হাতে-পায়ে জং ধরে গিয়েছে। শরীরও ভারী হয়ে গেছে। আপনারা মাঠে নামলে আমাদের শরীরের ব্যয়াম হবে।’

এ সময় বিএনপিকে উদ্দেশ্য করে তিনি আরো বলেন, ‘আপনারা ঈদের পরে আন্দোলনের কথা বলছেন। আসলে কোন ঈদের পর আপনাদের আন্দোলন সেটা আপনারাই ভালো জানেন।’

সংলাপের সম্ভাবনা নাকচ করে দিয়ে কামরুল বলেন, ‘আইয়ুব খানের সঙ্গে সংলাপ করে যেমন কোনো লাভ হয়নি, তেমনি এদের সঙ্গে সংলাপ করেও কোনো লাভ হবে না। এছাড়া দেশে কী এমন হয়েছে যে তার জন্য সংলাপের প্রয়োজন আছে।’

তিনি বলেন, ‘আগামী নির্বাচন হবে ২০১৯ সালের সংবিধান অনুযায়ী শেখ হাসিনার অধীনে। গত ৫ জানুয়ারির নির্বাচনের আগে তাদের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় দেয়ার কথা ছিল। আগামী নির্বাচনে সেটাও দেয়া হবে না। তাদের সঙ্গে কোনো আলোচনাও করা হবে না।’

সুশীল সমাজকে উদ্দেশ্য করে খাদ্যমন্ত্রী বলেন, ‘১/১১র কুশিলবরা আবার সক্রিয়া হয়েছে। বিএনপি-জামায়াত যতটা না কথা বলে এক শ্রেণীর বুদ্ধিজীবীরা তার চেয়ে বেশি বলে যা বিএনপি-জামায়াতের পক্ষে যায়।’

তিনি বলেন, ‘ড. কামাল হোসেন ও মাহমুদুর রহমান মান্নারা এক হয়েছে। তৃতীয় শক্তি গঠন করবে বলে হুঙ্কার দেয়। আসলে এরা ওয়ান ম্যান পার্টি। এদের মাথা বাদে বাটি চালান দিয়েও অন্য কাউকে খুঁজে পাওয়া যাবে না।’

সংগঠনের সভাপতি অ্যাডভোকেট তারানা হালিমের সভাপতিত্বে এতে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, সংগঠনের সহসভাপতি নাট্যব্যক্তিত্ব এনামুল হক, সাধারণ সম্পাদক অরুন সরকার রানা, স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের শিল্পী মনোরঞ্জন ঘোষাল প্রমুখ

Comments are closed.

Scroll To Top
Bangladesh Affairs