সর্বশেষ সংবাদ :

ঐক্যফ্রন্ট থেকে নির্বাচন করছেন আওয়ামী লীগের সাবেক অর্থমন্ত্রীর ছেলে ড. রেজা কিবরিয়া

Share Button

রিপোর্ট:-দৈনিক মুক্তকন্ঠ,
১৭ নভেম্বর , ২০১৮। সময়: ০৬,০০,PM

হবিগঞ্জ-১ (নবীগঞ্জ-বাহুবল) আসনে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী হতে চলেছেন সাবেক অর্থমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ নেতা শাহ এএমএস কিবরিয়ার ছেলে অর্থনীতিবিদ ড. রেজা কিবরিয়া। সকল জল্পনা কল্পনার অবসান ঘটিয়ে তিনি নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ড. রেজা কিবরিয়া নিজেই।

তিনি এ প্রতিবেদককে বলেন, এ আসন থেকে নির্বাচন করা আমার বাবার (শাহ এএমএস কিবরিয়া) ইচ্ছে ছিল। আমি এবার তার ইচ্ছা পূরণ করতে চাই। তাছাড়া যুগ যুগ ধরে অবহেলিত আমার নিজ এলাকার উন্নয়নে ভূমিকা রাখতে চাই। হবিগঞ্জ-১ আসন থেকে আমার নির্বাচন করার ইচ্ছে ছিল। কারণ এটি আমার নিজ এলাকা। বাবা-দাদার ভিটেমাটি এখানে। তিনি জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট থেকে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার ইচ্ছা পোষণ করেছেন। তবে আনুষ্ঠানিকভাবে বিষয়টি রবিবার তিনি জানিয়ে দেবেন বলে জানান।

ড. রেজা কিবরিয়ার ঘনিষ্ঠ আত্মীয় ও শাহ এএমএস কিবরিয়ার প্রতিষ্ঠিত সাপ্তাহিক মৃদুভাষণ পত্রিকার নির্বাহী সম্পাদক সাহাব উদ্দিন শুভ জানান, ড. রেজা কিবরিয়ার নির্বাচন করার সিদ্ধান্ত অনেকটাই চূড়ান্ত।

গত কয়েক বছর ধরেই আলোচনা চলছিল ড. রেজা কিবরিয়া হবিগঞ্জ থেকে নির্বাচন করতে যাচ্ছেন। তবে কোন দল বা জোট থেকে তিনি প্রার্থী হতে যাচ্ছেন তা স্পষ্ট ছিল না। অনেকেই অনেক ধারণার উপর বিভিন্ন রকম মন্তব্য করছিলেন। অনেকেই আবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে এ নিয়ে নানান প্রচারণা দিয়েছেন। যার নির্ভরযোগ্য সূত্র কেউ কখনও উল্লেখ করতে পারেননি। এ নিয়ে বিভিন্ন সময় সাধারণ মানুষের মাঝে বেশ আলোচনাও হয়েছে। তবে এসব আলোচনার বেশিরভাগ সময়ই তিনি হবিগঞ্জ-১ আসন থেকে নির্বাচন করতে পারেন বলে আলোচনা হয়েছে।

অবশেষে সব জল্পনার অবসান ঘটিয়ে তিনি নির্বাচনের সিদ্ধান্ত নেন। তার নিজ এলাকা হবিগঞ্জ-১ (নবীগঞ্জ-বাহুবল) আসন থেকে নির্বাচনের সিদ্ধান্ত নেন। শুক্রবার রাতে এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ড. রেজা কিবরিয়া গণফোরাম থেকে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী হিসেবে লড়বেন। এদিকে তার নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতার খবরে আনন্দ বিরাজ করছে বিএনপি নেতাকর্মীদের মাঝে।

নবীগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান শেফু জানান, আমরা এখনও বিষয়টি নিশ্চিত নই। তবে ঢাকায় কেন্দ্রীয় নেতাদের সঙ্গে যোগাযোগ করছি।

Comments are closed.

Scroll To Top
Bangladesh Affairs