সর্বশেষ সংবাদ :

দলীয় স্লোগান পুলিশের ওসির কণ্ঠে ‘শেখ হাসিনার সরকার, বারবার দরকার’,

Share Button
19_153910
রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার দেবগ্রাম ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে বৃহস্পতিবার রাতে স্লোগান দিচ্ছেন গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি এ কে এম নাসির উল্লাহ।
স্টাফ রিপোর্টার: ২২ নভেম্বর ২০১৪।

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে সরকারের পক্ষে স্লোগান দিলেন গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি। তিনি দাবি করেন, আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখার কৌশল হিসেবেই তিনি ওই কাজ করেছেন।

জানা গেছে, রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার দেবগ্রাম ইউপি কার্যালয়সংলগ্ন মাঠে স্থানীয় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলন চলছিল। সেখানে দলের কাউন্সিলররা গোপন ভোটে দেবগ্রাম ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নতুন কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক নির্বাচন করেন। নতুন ওই কমিটির নাম ঘোষণা করতে মঞ্চে ওঠেন জেলা ও উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতারা। সবাই যখন নির্বাচিত কমিটির নাম শুনতে অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছে, এ সময় পুলিশের পোশাক পরা গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি এ কে এম নাসির উল্লাহ হঠাৎ মঞ্চে উঠে সামনের সারিতে গিয়ে দাঁড়ান। সবার আগে মাইক্রোফোন হাতে নিয়ে ওসি উপস্থিত নেতা-কর্মীদের উদ্দেশে বলেন, ‘আপনারা কি আমার সঙ্গে স্লোগান দিতে পারবেন?’ নেতা-কর্মীদের সাড়া পেয়ে তিনি স্লোগান তোলেন, ‘জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু’, শেখ হাসিনা এগিয়ে চলো, আমরা আছি তোমার সাথে’, ‘শেখ হাসিনার সরকার, বারবার দরকার’, ‘কেরামত ভাই (স্থানীয় এমপি) ভয় নাই, রাজপথ ছাড়ি নাই’।

স্লোগান শেষে ওসি আরো বলেন, ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়তে হলে জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে হবে। এ জন্য আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীদের ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে। তাই আমরা সবাই আওয়ামী লীগের পতাকাতলে থেকে মিলেমিশে কাজ করব।’ একজন থানার ওসির মুখে এমন রাজনৈতিক স্লোগান ও বক্তব্য শুনে উপস্থিত অনেকেই বিস্ময় প্রকাশ করেন। দেবগ্রামের ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের এক নেতা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, ওসি সাহেবের দেওয়া এমন স্লোগান ও বক্তব্য শুনে মনে হচ্ছে, পুলিশ অফিসারের পাশাপাশি উনি একজন আওয়ামী লীগ নেতাও।

গোয়ালন্দ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নুরুজ্জামান মিয়া বলেন, সম্মেলনে বিশাল জনসমাগম দেখে ওসি সাহেব হয়তো আবেগ ধরে রাখতে পারেননি। তাই হঠাৎ মঞ্চে উঠে মাইকে তিনি রাজনৈতিক স্লোগানসহ আওয়ামী লীগের পক্ষে কিছু কথা বলেছেন।

এ ব্যাপারে গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি এ কে এম নাসির উল্লাহ কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘দেবগ্রাম ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ওই কাউন্সিলে নতুন কমিটি গঠন নিয়ে আগে থেকেই এলাকায় দলের মধ্যে দুটি গ্রুপ মারমুখী অবস্থানে ছিল। তাই দুই পক্ষকে শান্ত রাখার পাশাপাশি আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখার কৌশল হিসেবে আমি ওই মঞ্চে স্লোগান দিয়ে কিছু কথা বলেছি। তাতে শান্তিপূর্ণভাবে সম্মেলন শেষ হয়েছে।’

Comments are closed.

Scroll To Top
Bangladesh Affairs