সর্বশেষ সংবাদ :

কুমিল্লার ১১ টি সংসদীয় আসনে ১৮ নতুন মুখ

Share Button
রিপোর্ট:-দৈনিক মুক্তকন্ঠ,
১৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮। সময়: ১১,১০,PM

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে কুমিল্লার ১১টি সংসদীয় আসনে ১৮ জন মনোনয়নপ্রত্যাশী নতুন মুখ নির্বাচনী এলাকায় গণসংযোগ ও প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন। তাঁদের কেউ সংবাদ সম্মেলন করে নিজেকে প্রার্থী ঘোষণা করেছেন। কেউ বিলবোর্ড, ব্যানার ও ফেস্টুন লাগিয়ে, আবার কেউ গণসংযোগ করে নির্বাচন করার কথা জানান দিয়েছেন।

নতুন মুখগুলোকে নিয়ে ভোটারদের মধ্যে কৌতূহল রয়েছে। বেশির ভাগই গত ঈদুল ফিতর থেকে মাঠে তত্পর রয়েছেন। অনেকে বছরখানেক আগে থেকেই বিভিন্ন সামাজিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে কৌশলে নির্বাচনী প্রচারণা চালাচ্ছেন।

এলাকায় খোঁজখবর ও বিভিন্ন শ্রেণির মানুষের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, কুমিল্লা-১ (দাউদকান্দি-মেঘনা) আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশী হলেন মেঘনা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান শফিকুল আলম, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সম্পাদক মো. আবদুস সবুর, জাতীয় ছাত্রসমাজের কেন্দ্রীয় সভাপতি সৈয়দ ইফতেখার আহসান।

অপরদিকে কুমিল্লা-২ (হোমনা-তিতাস) আসনে মাঠে আছেন আওয়ামী লীগের কুমিল্লা উত্তর জেলার সহসভাপতি সেলিমা আহমেদ, কুমিল্লা উত্তর জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক সারোয়ার হোসেন, তিতাস উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান পারভেজ হোসেন সরকার এবং বিএনপির এম কে আনোয়ারের ছেলে মাহমুদ আনোয়া ও একে এম ফজলুল হক মোল্ললা

কুমিল্লা-৪ (দেবীদ্বার) আসনে কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি হুমায়ুন মাহমুদ, যুগ্ম সম্পাদক রৌশন আলী, যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক সফিকুল আলম এবং কার্যকরী সদস্য আবুল কালাম আজাদ মাঠে আছেন।

এ ছাড়া কুমিল্লা-৫ (বুড়িচং-ব্রাহ্মণপাড়া) আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশী কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা কার্যকরী কমিটির সদস্য মো. আবদুছ ছালাম বেগ ও সেক্টরস কমান্ডারস ফোরামের কেন্দ্রীয় আইনবিষয়ক সম্পাদক সোহরাব হোসেন খান চৌধুরী, বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সহসভাপতি শওকত মাহমুদ।

কুমিল্লা-৭ (চান্দিনা) আসনে আওয়ামী লীগের কুমিল্লা উত্তর জেলা কমিটির সহ সভাপতি বিশিষ্ট চিকিৎসক প্রাণ গোপাল দত্ত।

কুমিল্লা-৮ (বরুড়া) আসনে কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের শিল্পবিষয়ক সম্পাদক এনামুল হক, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়া, কুমিল্লা-৯ (লাকসাম ও মনোহরগঞ্জ) আসনে লাকসাম বিএনপির সভাপতি আবুল কালাম নানাভাবে প্রচার-প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন।

মনোনয়ন প্রত্যাশীদের ভাষ্যঃ

গত ১৩ জুন কুমিল্লা নগরের নজরুল অ্যাভিনিউ এলাকার একটি হোটেলে সংবাদ সম্মেলন করে কুমিল্লা-৫ আসনে প্রার্থী হওয়ার ঘোষণা দেন পেশায় বিজ্ঞাপন ব্যবসায়ী মো. আবদুছ ছালাম বেগ। তিনি ঢাকা-চট্টগ্রাম, কুমিল্লা-ব্রাহ্মণবাড়িয়া মহাসড়কে ও কুমিল্লা-বাগড়া সড়কে পাঁচ শতাধিক বিলবোর্ড-ফেস্টুন লাগিয়েছেন।

এ প্রসঙ্গে আবদুছ ছালাম বেগ বলেন, ‘প্রায় তিন দশক ধরে ছাত্রলীগ, যুবলীগ হয়ে আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত রয়েছি। দলীয় মনোনয়ন পেয়ে নির্বাচিত হলে মানুষের জন্য কাজ করব।’

গত শনিবার দাউদকান্দিতে এক মতবিনিময় সভায় আওয়ামী লীগের মো. আবদুস সবুর বলেন, ‘কুমিল্লা-১ আসনে মনোনয়ন চাইব। আশা করি দল আমাকে মনোনয়ন দেবে।’

বিএনপির মনোনয়নপ্রত্যাশী আবুল কালাম বলেন, ‘কুমিল্লা-৯ আসনে আমি দলের জন্য ২৭ বছর ধরে কাজ করছি। এবার দলের সব কমিটি আমার পক্ষে। নির্বাচনের জন্য প্রস্তুত রয়েছি। আশা করি মনোনয়ন পাব।’

প্রখ্যাত চিকিৎসক প্রাণ গোপাল দত্ত বলেন, ‘শেখ হাসিনার কাছে দলীয় মনোনয়ন চাইব। গত দুই বছরে এলাকায় নৌকা প্রতীকের জন্য আনুষ্ঠানিকভাবে কাজ করেছি। এর আগে বিভিন্নভাবে দলের নেতা-কর্মীদের পাশে ছিলাম।’

কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ হোসেন বলেন, যে কেউ মনোনয়ন চাইতে পারেন। এটা দল করলে তাঁর গণতান্ত্রিক অধিকার। নতুনেরা উদ্যমী হয়ে দলের জন্য কাজ করলে এটা দোষের না। মনোনয়ন বোর্ড যাঁকে যোগ্য মনে করবেন, তাঁকে প্রার্থী করবেন।

বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সহসভাপতি ও জাতীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি শওকত মাহমুদ বলেন, ‘আমি আমার নির্বাচনী এলাকায় বহু আগে থেকেই গণসংযোগ ও প্রচারণা চালাচ্ছি।’

Comments are closed.

Scroll To Top
Bangladesh Affairs