সর্বশেষ সংবাদ :

দেশে জননির্বাচিত সরকার নেই

Share Button

98287_1

স্টাফ রিপোর্টার:  ১২ নভেম্বর ২০১৪।

দেশে জনগণের ভোটে নির্বাচিত সরকার নেই বলে দাবি করেছেন বিএনপি চেয়ারপারসন ও ২০ দলীয় জোটনেতা খালেদা জিয়া।

বুধবার (১২ নভেম্বর) বিকেলে কিশোরগঞ্জের গুরুদয়াল সরকারি কলেজ মাঠে ২০ দলীয় জোট আয়োজিত জনসভায় তিনি এ দাবি করেন।

২০ দলীয় জোটের এ জনসভার সভাপতি জেলা বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি মো. শরিফুল আলম।

খালেদা বলেন, দেশে জনগণের নির্বাচিত সরকার নেই। ৫ জানুয়ারির নির্বাচনে জনগণকে ভোট দিতে দেওয়া হয়নি। ভোটকেন্দ্রে কুকুর বসেছিল। তাহলে কী করে তারা নিজেদের নির্বাচিত সরকার দাবি করে।

সংসদ সদস্যরা জনগণের ভোটে নির্বাচিত নন দাবি করে দশম সংসদকেও অবৈধ বলে আখ্যা দেন খালেদা।

এর আগে, সকাল ১০টা ৫০ মিনিটে গুলশানের ‍বাসভবন থেকে কিশোরগঞ্জের উদ্দেশে রওনা দেন বিএনপি চেয়ারপারসন। বিকেল ৩টার দিকে কিশোরগঞ্জ জেলা সার্কিট হাউসে পৌঁছান তিনি। সেখানে বিশ্রাম শেষে জনসভা মঞ্চের উদ্দেশে রওয়ানা দেন। বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে জনসভা মঞ্চে পৌঁছে প্রধান অতিথির আসন নেন খালেদা।

গুলশান থেকে শেরাটনমোড়-পল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয় হয়ে যাত্রাবাড়ি ফ্লাইওভার-কাঁচপুর ব্রিজ, ভৈরব বাজার, দুর্জয় মোড়, কুলিয়ার চর দিয়ে কিশোরগঞ্জ পৌঁছান খালেদা।

যাত্রাপথে গুরুত্বপূর্ণ মোড়ে মোড়ে নেত্রীকে অভিবাদন জানাতে রাস্তার দু’পাশে শত শত কর্মী সমর্থকের ভিড় দেখা যায়।

সমাবেশে ভাষণ দান শেষে আবার জেলা সার্কিট হাউসে গিয়ে সন্ধ্যা ৭টায় ঢাকার উদ্দেশে রওনা দেবেন বিএনপি চেয়ারপারসন।

২০০৬ সালে চার দলীয় জোট সরকারের শেষ দিকে কিশোরগঞ্জে এসেছিলেন, এটিই ছিল প্রধানমন্ত্রী হিসেবে খালেদা জিয়ার শেষ কিশোরগঞ্জ সফর। দীর্ঘ ৮ বছর পর বিএনপির চেয়ারপারসন হিসেবে তিনি কিশোরগঞ্জে এলেন।

Comments are closed.

Scroll To Top
Bangladesh Affairs