সর্বশেষ সংবাদ :

ফেনীতে বাসে আগুন: বিএনপির ১৩ নেতাকর্মী কারাগারে

Share Button

Image result for ফেনীতে বাসে আগুন: স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিলেন ছাত্রদল নেতা মিলন

রিপোর্ট:-দৈনিক মুক্তকন্ঠ,
০২ নভেম্বর ২০১৭। সময়: ১০.১০.PM,

ফেনীতে বোমার আগুনে দুটি বাস পুড়ে যাওয়ার ঘটনায় বিএনপির ১৩ নেতাকর্মীকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২ নভেম্বর) বিকালে তাদের ফেনীর জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট জাকির হোসেনের আদালতে  আনা হয়। এ সময় তাদের পাঁচ দিনের রিমান্ড চায় পুলিশ। আদালত শুনানির জন্য পরবর্তী দিন ধায করেন। পরে সন্ধ্যায়  তাদের ফেনী কারাগারে পাঠানো হয়।ফেনী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রাশেদ খান চৌধুরী এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

 ওসি জানান, গ্রেফতার ১৩ জনের মধ্যে সোনাগাজী পৌর বিএনপির সভাপতি আবুল মোবারক ভিপি দুলাল, ফেনী পৌরসভার সাবেক কাউন্সিলর বাবুল ও ফুলগাজী উপজেলা ছাত্রদলের সভাপতি কামাল হোসেন, ছাগলনাইয়ার ছাত্রদল নেতা জাফর, যুবদল নেতা জয়নাল আবেদীন, আমজাদ হোসেন আজাদ রয়েছেন। এর আগে বুধবার ছয় জনকে আটক করে পুলিশ।  ওসি আরও জানান, এরই মধ্যে গ্রেফতার ছাত্রদল নেতা নূরে সালাম মিলন স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। তিনি ফেনী সদরের ফাজিলপুর ইউনিয়ন ছাত্রদলের সভাপতি।

 প্রসঙ্গত, রোহিঙ্গাদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ শেষে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া গাড়িবহর নিয়ে ঢাকায় ফেরার পথে মঙ্গলবার (৩১ অক্টোবর) বিকাল ৪টা ৫০ মিনিটের দিকে ফেনীর মহিপাল পার হওয়ার কিছুক্ষণের মধ্যেই ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে দুইটি বাসে আগুন দেয় দুর্বৃত্তরা। বাস দুটি ওই স্থানের নজির আহমদ সিএনজি স্ট্যান্ডের সামনে দাঁড়ানো ছিল। সুগন্ধা পরিবহন ও চৌদ্দগ্রাম ট্রান্সপোর্টের বাস দুটিতে কে বা কারা পেট্রোল বোমা ছুড়ে মারে। প্রাণ বাঁচাতে ড্রাইভার দ্রুত বাস থেকে নেমে যান। এরপরই বাসটিতে আগুন ধরে যায়। এতে দুটি বাস অনেকাংশেই পুড়ে যায়। এ ঘটনায় ফেনী মডেল থানা পুলিশের এসআই নুরুল হক বাদী হয়ে জেলা ছাত্রদলের সভাপতি বরাত ও সাধারণ সম্পাদক মামুনসহ ২৯ নেতাকর্মীর নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত ৩০-৩৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন।

Comments are closed.

Scroll To Top
Bangladesh Affairs