সর্বশেষ সংবাদ :

কুমিল্লার ৯৭ কি. মি. এলাকায় ছিল নেতাকর্মীদের ঢল

Share Button

রিপোর্ট:-দৈনিক মুক্তকন্ঠ,
২৯ অক্টোবর ২০১৭। সময়: ০৮.১০.AM,

বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার কক্সবাজার সফরকালে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লার বিভিন্ন পয়েন্টে বিএনপির নেতাকর্মীদের অবস্থানের পাশাপাশি আওয়ামী লীগ ও ছাত্রলীগ কয়েকটি স্থানে শোডাউন করেছে।এনিয়ে শুক্রবার থেকেই স্থানীয় পুলিশ প্রশাসন উৎকণ্ঠায় ছিল। সংঘাত এড়াতে শনিবার সকাল থেকেই মহাসড়কের কুমিল্লা অংশে বিপুল সংখ্যক পুলিশ, র্যাব, ডিবি ও হাইওয়ে পুলিশের সদস্য মোতায়েন করা হয়। তবে খালেদা জিয়া কুমিল্লায় পৌঁছার আগে সদর দক্ষিণ ও চান্দিনায় আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ ও পুলিশ বিএনপি ও ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের উপর হামলা চালিয়েছে বলে বিএনপি অভিযোগ করেছে।

দলীয় সূত্রে জানা যায়, পথে পথে যানজট ও গাড়ির চাকা বিকলের ভোগান্তির মধ্য দিয়ে কুমিল্লার ৯৭ কিলোমিটার সড়ক অতিক্রম করতে বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার সময় লেগেছে প্রায় সোয়া ২ ঘণ্টা। দুপুর ২টার দিকে খালেদা জিয়া কুমিল্লার প্রবেশদ্বার দাউদকান্দিতে পৌঁছাঁন। পরে দাউদকান্দি, চান্দিনা, দেবিদ্বার, বুড়িচং, আদর্শ সদর, সদর দক্ষিণ, চৌদ্দগ্রামসহ আশপাশের উপজেলা থেকে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের পাশে সমবেত নেতাকর্মীদের দেয়া অভ্যর্থনার পয়েন্টসমূহ অতিক্রম করে বিকেল সোয়া ৪টার দিকে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম সীমান্ত অতিক্রম করেন।দলীয় নেত্রীকে অভ্যর্থনা জানাতে সকাল থেকে মহাসড়কের দাউদকান্দি থেকে চৌদ্দগ্রাম সীমান্ত পর্যন্ত দলীয় নেতাকর্মীরা ব্যানার-ফেস্টুন নিয়ে খালেদা জিয়া ও দলের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দকে অভ্যর্থনা জানাতে সমবেত হন।

দাউদকান্দিতে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেনের পক্ষে, চান্দিনায় খোরশেদ আলম, ইলিয়টগঞ্জে মুরাদনগর বিএনপি, দেবিদ্বারে সাবেক এমপি ইঞ্জিনিয়ার মঞ্জুরুল আহসান মুন্সীর সমর্থকরা, নিমসার এলাকায় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শওকত মাহমুদ, আলেখারচর এলাকায় জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক হাজী আমিন উর রশিদ ইয়াছিন, পদুয়ার বাজার এলাকায় সিটি মেয়র মনিরুল হক সাক্কুর সমর্থকরা, সদর দক্ষিণের দয়াপুর থেকে সুয়াগাজী পর্যন্ত দলের চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা মনিরুল হক চৌধুরী ও চৌদ্দগ্রামে কামরুল হুদা দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে সমবেত হয়ে দলের নেত্রীকে অভিনন্দন জানান।

কেন্দ্রীয় বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মোস্তাক মিয়া ও কুমিল্লা উত্তর জেলা বিএনপির সভাপতি খোরশেদ আলম জানান, চান্দিনা ও সদর দক্ষিণে আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ ও পুলিশ মহাসড়কের পাশে আমাদের শান্তিপূর্ণ অবস্থানে নেতাকর্মীদের উপর হামলা করে ব্যানার ছিনিয়ে নিয়েছে।

Comments are closed.

Scroll To Top
Bangladesh Affairs