সর্বশেষ সংবাদ :

খুলনা সিটিতে মনোনয়ন পাচ্ছেন শেখ জুয়েল!

Share Button

Image result for শেখ জুয়েল!

রিপোর্ট:-দৈনিক মুক্তকন্ঠ,
১৫জুলাই ২০১৭। সময়: ১০.১০.AM.

আসন্ন সিটি করপোরেশন নির্বাচনে খুলনায় মেয়র পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেতে যাচ্ছেন শেখ সালাহ উদ্দীন জুয়েল। তিনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছোট ভাই শেখ আবু নাসেরের মেজো ছেলে।সম্প্রতি দলের সভাপতিমণ্ডলীর সভায় এ বিষয়ে প্রস্তুতি নিতে দলের হাইকমান্ডকে নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনা। তিনি সৎ, যোগ্য ও পরিচ্ছন্ন ইমেজের প্রার্থী হিসেবে চাচাতো ভাই শেখ জুয়েলের প্রতি খুলনার মানুষের সমর্থন রয়েছে বলেও উল্লেখ করেন।বৈঠকে উপস্থিত দলের একাধিক নেতা জানান, খুলনা সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র ও মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি তালুকদার আব্দুল খালেককে নিয়েও কথা হয়। সেখানে আলোচনা হয় যে, ৫ বছর মেয়র থাকাকালে খুলনার উন্নয়নে ব্যাপক ভূমিকা রাখেন খালেক। তারপরও গতবারের নির্বাচনের অন্যান্য সিটি কর্পোরেশনের মতোই হেফাজত ইস্যুতে বানোয়াট গুজবে সরকারের ভাবমূর্তি নষ্ট হওয়ায় তাকেও খেসারত দিতে হয়।আওয়ামী লীগ হাইকমান্ড সূত্রের খবর, প্রবীণ রাজনীতিবিদ ও খুলনা-বাগেরহাটের জনপ্রিয় নেতা বাগেরহাট-৩ আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য তালুকদার আব্দুল খালেককে এবার আরও বড় কোনো দায়িত্ব দিতে চান দলের সভাপতি শেখ হাসিনা। আর এ কারণেই খুলনা সিটিতে বেশি  সময় সেবা দেওয়ার মতো পরিচ্ছন্ন ও নতুন নেতৃত্ব পছন্দ দলটির। সবদিক বিবেচনায় নিয়ে তাই শেখ জুয়েলকেই মনোনয়নের বিষয়টি একরকম চূড়ান্ত হয়েছে।

নিভৃতচারী সালাহ উদ্দিন জুয়েল সফল ব্যবসায়ী, মধুমতি ব্যাংকের ভাইস চেয়ারম্যান ও খুলনা বিভাগীয় অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন মালিক গ্রুপের সভাপতি।তার বাবা শেখ আবু নাসেরকেও ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সঙ্গে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়।গত বছর খুলনা বিভাগীয় অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন মালিক গ্রুপের সভাপতি হিসেবে তিনি প্রথম খুলনা প্রেসক্লাবে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন। এছাড়া তাকে তেমন একটা মিডিয়ায় দেখা যায় না। অধিকাংশ সময়ই তিনি ব্যবসায়িক কাজে ঢাকায় থাকেন। নৌ-পরিবহনই তার মূল ব্যবসা। খুলনার শেরেবাংলা রোডে তার বাড়ি। মোট সাত ভাই-বোনের মধ্যে তিনি দ্বিতীয়।জুয়েলের বড় ভাই শেখ হেলালউদ্দিন বাগেরহাট-২ আসনের সংসদ সদস্য। ৩য় ভাই শেখ সোহেল বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) পরিচালক।

এতোদিন মহানগর আওয়ামী লীগের রাজনীতি কিংবা মেয়র পদে মনোনয়ন চাওয়ার কোনো প্রচারণায় উপস্থিতি ছিল না জুয়েলের। তবে সাম্প্রতিক সময়ে কিছু স্থানে প্যানা, ফেস্টুন ও তোরণে তার ভাই শেখ হেলাল ও শেখ সোহেলের সঙ্গে তার ছবিরও দেখা মিলছে। বিশেষ করে সদ্য শেষ হওয়া ঈদের তোরণ, ফেস্টুন ও ব্যানারে তার উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে।সাধারণ মানুষের কাছে শেখ পরিবারের সদস্য ও ব্যবসায়ী নেতা হিসেবে সুনাম থাকলেও এতোদিন রাজনীতিতে জুয়েলের কোনো অংশগ্রহণ না থাকায় দলীয় সিদ্ধান্তে খালেকপন্থিরা কিছুটা হতাশ হয়ে পড়েছেন। তাদের দাবি, নগর পিতার পদে শেখ জুয়েলের স্থলে তালুকদার আব্দুল খালেক প্রার্থী হলে শতভাগ জয় নিশ্চিত করা যাবে।অন্যদিকে দলের হাইকমান্ড বলছে, খুলনা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে গতবার পরাজিত হন সাবেক মেয়র তালুকদার আবদুল খালেক। এবার ক্লিন ইমেজের তরুণ নেতা শেখ সালাহ উদ্দিন জুয়েলকে প্রার্থী করা হলে আওয়ামী লীগ জিতবে। প্রধানমন্ত্রীর চাচাতো ভাই জুয়েলের প্রতি খুলনার মানুষের আস্থার কথাটিও বিবেচনায় রেখে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হচ্ছে।

Comments are closed.

Scroll To Top
Bangladesh Affairs