সর্বশেষ সংবাদ :

নির্বাচনী মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন সাবেক দুই সচিব

Share Button

রিপোর্ট:-দৈনিক মুক্তকন্ঠ,
২৫ মে ২০১৭। সময়: ০৭.৩০.PM

নির্বাচনী মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন সাবেক দুই সচিব মো. গোলাম হোসেন ও নূর মোহাম্মদ। গোলাম হোসেন সর্বশেষ জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যান ছিলেন। পুলিশের সাবেক আইজি নূর মোহাম্মদ যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সচিব পদ থেকে অবসরে গেছেন। সাবেক সচিব গোলাম হোসেন চাঁদপুর-১ এবং নূর মোহাম্মদ কিশোরগঞ্জ-২ আসন থেকে নির্বাচন করতে আগাম প্রচারণা শুরু করেছেন। নূর মোহাম্মদ নির্বাচনী এলাকায় বিয়ে, কুলখানি, সুন্নাতে খতনাসহ বিভিন্ন অনুষ্ঠানে অংশ নিচ্ছেন। এছাড়া পথসভা ও ছোটখাটো জনসভা করছেন। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, কিশোরগঞ্জ-২ (পাকুন্দিয়া-কটিয়াদি) আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট মো. সোহরাব উদ্দিন

। একই সঙ্গে তিনি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য। রাজনীতিতে নবাগত এই এমপি প্রথমবারের মতো সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন। নবাগত এ এমপির বিপরীতে নূর মোহাম্মদ আওয়ামী লীগের নতুন প্রার্থী হিসেবে জানান দিচ্ছেন। গত ৭ই মে বিকালে তিনি কটিয়াদী মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিল কার্যালয়ে মুক্তিযোদ্ধাদের সঙ্গে মতবিনিময়, কটিয়াদী বাসস্ট্যান্ডে এক পথসভা ও তিন শতাধিক মোটরবাইক নিয়ে শোডাউন করেন। মতবিনিময় ও পথসভায় তিনি বলেন, আমি আগামী নির্বাচনে শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে নৌকা প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করার জন্য আপনাদের সমর্থন ও সহযোগিতা চাই। আমি দেয়ার জন্য এসেছি, নেয়ার জন্য নয়। কটিয়াদী-পাকুন্দিয়াবাসীর কল্যাণের জন্য নিজেকে বিলিয়ে দিতে চাই। এ সময় তার সঙ্গে কটিয়াদি উপজেলার বিভিন্ন পর্যায়ের নেতারা উপস্থিত ছিলেন। নূর মোহাম্মদের এমন আগাম নির্বাচনী প্রচারণায় এলাকার সব মহলে ব্যাপক আলোচনা শুরু হয়েছে। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, বিসিএস (পুলিশ) ক্যাডারের সাবেক কর্মকর্তা নূর মোহাম্মদ ২০০৭ সালে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে ছিলেন পুলিশের আইজি। এরপর মহাজোট সরকারের আমলে তাকে মরক্কোর অ্যাম্বাসেডর নিযুক্ত করা হয়। একই আমলে অ্যাম্বাসেডর থেকে ফিরিয়ে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সচিবের দায়িত্ব দেয়া হয়। গেল বছরের নভেম্বরে সরকারি চাকরি থেকে অবসরে গেছেন তিনি। আগামী সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে নূর মোহাম্মদ দৈনিক মুক্তকন্ঠকে বলেন, চাকরি জীবন থেকেই এলাকার মানুষের সুখে- দুঃখে আছি। আগামীতে আরো যাতে ভালোভাবে থাকতে পারি ওই চিন্তায় আগামীতে সংসদ সদস্য পদে নির্বাচন করতে চাই। এদিকে চাঁদপুর-১ আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য ড. মহীউদ্দীন খান আলমগীর। সাবেক এ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর নির্বাচনী এলাকায় জন্মগ্রহণ করেছেন এনবিআরের সাবেক চেয়ারম্যান মো. গোলাম হোসেন। কয়েক দিন আগে নিজের নির্বাচনী এলাকায় গিয়ে বাধার মুখে পড়েছেন এ সাবেক আমলা। ওই সময় সঙ্গে ছিলেন কচুয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মো. শাহাদাত হোসেন। দুই ভাইয়ের গাড়িবহরে হামলার ঘটনায় সাংবাদিকসহ ১০ জন আহত হন। বিভিন্ন সূত্র থেকে পাওয়া তথ্যে জানা গেছে, গোলাম হোসেন তার আত্মীয়ের বাড়ি কচুয়া কড়ইয়া ইউনিয়নের ডুমুরিয়া সরকার বাড়িতে কুলখানিতে যান। সেখান থেকে নিজ বাড়িতে ফেরার পথে তার গাড়িবহরে হামলা চালানো হয়। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, বিসিএস (কর) ক্যাডারের সাবেক কর্মকর্তা মো. গোলাম হোসেন। চাকরিজীবনে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব এবং এনবিআরের চেয়ারম্যানসহ গুরুত্বপূর্ণ রাষ্ট্রীয় দায়িত্ব পালন করেছেন। ১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগ সরকারের আমলে ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের পরিচালক। এ কারণে তাকে আওয়ামী লীগের ঘনিষ্ঠজন হিসেবে বিবেচনা করা হয়। আগামী নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার বিষয়ে গোলাম হোসেন দৈনিক মুক্তকন্ঠকে বলেন, সরকারি চাকরির পর এখন অবসরে আছি। নির্বাচনের বাকি এখনও দেড় বছর। তাই এখনই নির্বাচন করবো কিনা বলতে পারছি না। তবে আগামীতে নির্বাচন করবো- এটা আপনাকে বলতে পারি। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ (আরপিও) অনুযায়ী সরকারি চাকরিজীবীরা অবসরের পরদিনই নির্বাচনে প্রার্থী হতে পারবেন। ২০১৪ সালের ৫ই জানুয়ারির নির্বাচনের আগে এ আদেশ সংশোধন করা হয়েছে। তাই বর্তমানে সচিব পদে দায়িত্ব পালন করছেন এমন অনেককেই আগামীতে নির্বাচনী মাঠে দেখা যেতে পারে।

Comments are closed.

Scroll To Top
Bangladesh Affairs