সর্বশেষ সংবাদ :

কুমিল্লায় বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়াসহ ৭৮ জনের বিরুদ্ধে চার্জশীট

Share Button

Image result for এম কে আনোয়ার, ভাইস চেয়ারম্যান শওকত মাহমুদ, যুগ্মমহাসচিব রুহুল কবির রিজভী,

রিপোর্ট:-দৈনিক মুক্তকন্ঠ,
০৬ মার্চ ২০১৭। সময়: ১০.৩৫.PM

বিএনপি আহুত অবরোধের সময় প্রেট্রল বোমায় কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামের জগমোহনপুরে যাত্রীবাহী বাসের ৮ ঘুমন্ত যাত্রীকে পুড়িয়ে মারার ঘটনার বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিষ্টার রফিকুল ইসলাম মিয়া, এম কে আনোয়ার, ভাইস চেয়ারম্যান শওকত মাহমুদ, যুগ্মমহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, যুগ্ম মহাসচিব সালাউদ্দিন আহমেদ এবং মামলার প্রধান আসামী জামায়াতের সাবেক সংসদ সংসদ ডা. সৈয়দ আবদুল্লাহ মো: তাহেরসহ ৭৮ জনের বিরুদ্ধে সোমবার চার্জসীট দিয়েছে পুলিশ। সোমবার দুপুরে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মো: ইব্রাহিম কুমিল্লার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট ৫ নং আমলী আদালতে এ চার্জসীট দাখিল করেন।
পরবর্তীতে মামলা তদন্তকালে বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা মনিরুল হক চৌধুরীসহ ২২ জনকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়। তদন্তকালে আসামীদের ২ জন মৃত্যুবরণ করে। অপর ৪ জনকে ঘটনা সাথে সম্পৃক্ত না থাকায় চার্জশীটে নাম অন্তর্ভুক্ত করা হয়নি।
মামলায় অভিযুক্ত ১২ জনসহ ২৫ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ঘটনায় সম্পৃক্ত ৩ জন স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিও দিয়েছেন।

২০১৫ এর ৩ ফেব্রুয়ারি বিএনপি আহুত অবরোধ চলাকালে সোমবার দিবাগত রাত সাড়ে তিনটায় (মঙ্গলবার ভোর)  ঢাকা চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার কালিকাপুর ইউনিয়নের জগমোহনপুরে কক্সবাজার থেকে ঢাকাগামী আইকন পরিবহনের (ঢাকা মেট্রো ব ১৪-৪০৮০) একটি বাসে দুর্বৃত্তরা পেট্রোল বোমা নিক্ষেপ করে । এতে মুহুর্তের মধ্যে বাসটিতে আগুন ধরে যায়।  খবর পেয়ে খুব স্বল্প সময়ের মধ্যে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌছে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে। বাসের কয়েকযাত্রী জানালা দিয়ে লাফিয়ে প্রাণে বাচঁতে পারলেও ততক্ষনে দগ্ধ হয়ে যায় অন্তত ২০ যাত্রী। এদের মধ্যে ৮ যাত্রী দগ্ধ হয়ে নিহত হন।

Comments are closed.

Scroll To Top
Bangladesh Affairs