সর্বশেষ সংবাদ :

বিটিভির জামায়াত-হেফাজতিদের তালিকার নির্দেশ তথ্যমন্ত্রীর

Share Button

সূচিপত্রlol

রিপোর্টঃ-মোঃ সফিকুর রহমান সেলিম,
২২ অক্টোবর ২০১৪।

বাংলাদেশ টেলিভিশনের (বিটিভি) বিভিন্ন অনুষ্ঠানে কর্মরত জামায়াত ও হেফাজতপন্থীদের তালিকা করার নির্দেশ দিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু।

বেসরকারি টেলিভিশনে ইসলামী অনুষ্ঠান উপস্থাপক মাওলানা ফারুকীর খুনীদের গ্রেফতার দাবিতে দশ সদসস্যের একটি প্রতিনিধি দল তথ্যমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করার সময় মন্ত্রী এ কথা বলেছেন বলে বৈঠকে উপস্থিত একটি সূত্র এ তথ্য জানিয়েছেন।

ঢাকাস্থ নারিন্দার মুশুরীখোলার দরবার শরীফের পীর শাহ মোহাম্মদ আহসানুজ্জামানের নেতৃত্বে দশ সদস্যের আলেম-ওলামা-মাশায়েখ প্রতিনিধি দল বুধবার দুপুরে তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনুর সঙ্গে সচিবালয়ে সাক্ষাৎ করেন।

প্রতিনিধি দলের সদস্য ও আহলে সুন্নাত ওয়াল জামায়াত বাংলাদেশের নির্বাহী মহাসচিব আ ন ম মাসউদ হোসাইন আল কাদেরী দ্য রিপোর্টকে বলেছেন, ‘ফারুকী হত্যায় এ পর্যন্ত কোনো আসামি ধরা না পড়ার বিষয়ে কথা বলতে গিয়েছিলাম। সঙ্গে বিটিভিতে জামায়াত-হেফাজতের যারা ছদ্মবেশে অনুষ্ঠান করছেন তাদের বিষয়টিও বলেছি।’

তথ্যমন্ত্রী আপনাদের কী বলেছেন? জানতে চাইলে মাসউদ হোসাইন বলেন, ‘মন্ত্রী বলেছেন, জামায়াত-হেফাজতিরা শুধু বিটিভিতে নয়, অনেক টিভিতে আছে। সবার বিষয়েই খোজঁ-খবর নেওয়া হবে।’

বৈঠকে উপস্থিত আরেকটি সূত্র জানিয়েছেন, বিটিভিতে সপ্তাহে একাধিক ধর্মীয় অনুষ্ঠান প্রচারিত হয়। সে সব অনুষ্ঠানে পরিচিত হেফাজত-জামায়াতপন্থীরা বাদ গেলেও তাদের অনুসারীরা অনুষ্ঠান করছেন। তাদের বিষয়ে আমরা মন্ত্রীকে জানিয়েছি। তার পরিপ্রেক্ষিতেই মন্ত্রী বিটিভিতে থাকা জামায়াত ও হেফাজত সংশ্লিষ্টদের তালিকা করে জমা দেওয়ার কথা বলেছেন।

বৈঠকে থাকা একজন মাদ্রাসাশিক্ষক দ্য রিপোর্টকে জানান, তথ্যমন্ত্রী জানিয়েছে তালিকা পেলে তিনি বিটিভির মহাপরিচালককে বিষয়টি অবহিত করবেন। যাতে জামায়াত-হেফাজতপন্থী কেউ বিটিভিতে ছদ্মবেশে অনুষ্ঠান পরিচালনা করতে না পারেন।

বৈঠককালে প্রতিনিধি দলের নেতৃত্বদানকারী পীর শাহ মোহাম্মদ আহসানুজ্জামান পবিত্র হজ পালনের জন্য তথ্যমন্ত্রীকে অভিনন্দন জানান। জবাবে তথ্যমন্ত্রী তার হজ পালনের বিবরণ দেন প্রতিনিধি দলকে।

তথ্যমন্ত্রী প্রতিনিধি দলকে বলেন, ‘সংবিধান অনুসারেই ধর্মের পবিত্রতা রক্ষা এবং সাম্প্রদায়িক-যুদ্ধাপরাধীদের মোকাবিলা করা হবে। ধর্ম ব্যবসায়ী যুদ্ধাপরাধী-জঙ্গিবাদী-খালেদাপন্থী বিএনপি চক্র যাই বলুক না কেন, শেখ হাসিনার সরকার সংবিধান অনুযায়ী সকল ধর্ম শান্তিপূর্ণভাবে পালনের সব ব্যবস্থা গ্রহণ করেছেন। একই সঙ্গে সরকার পীর-আলেম-ওলামা-মাশায়েখদের যথাযথ সম্মান ও মর্যাদা রক্ষায় দৃঢ়প্রতিজ্ঞ।’

প্রসঙ্গত, গত ২৭ আগস্ট বেসকারি টেলিভিশনে ইসলামী অনুষ্ঠান উপস্থাপক মাওলানা নুরুল ইসলাম ফারুকীকে রাজধানীর পূর্ব রাজা বাজারের নিজবাসায় গলা কেটে নৃশংসভাবে হত্যা করা হয়। আলেম-ওলামা-মাশায়েখ প্রতিনিধিদের মধ্যে নাঈমুদ্দিন আল কাদেরী, মুফতি আবু জাফর মো. হেলাল উদ্দিন, আ. ন. ম মাসউদ হোসাইন আল কাদেরী, আব্দুল হাকিম, আবুল খায়ের মো. হাবিবুল্লাহ, তোফায়েল আহমদ, সৈয়দ মোজাফ্ফর আহমদ, আবুল বশর ও মো. সদরুদ্দিন আল আজহারী এবং জাসদ ঢাকা মহানগরের (পূর্ব) সভাপতি মো. শহিদুল ইসলাম এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

Comments are closed.

Scroll To Top
Bangladesh Affairs