নয় বিশিষ্ট ব্যক্তিকে শহীদ মিনারে ‘অবাঞ্ছিত’ ঘোষণা

Share Button
78714_9
রিপোর্টঃ-মোঃ সফিকুর রহমান সেলিম
ঢাকা, ১৭ অক্টোবর ২০১৪।
কবি ও কলামিস্ট ফরহাদ মজহার, জাহাঙ্গীর নগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সরকার ও রাজনীতি বিভাগের অধ্যাপক ড. দিলারা চৌধুরী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের অধ্যাপক আমেনা মহসীন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের অধ্যাপক ড. আসিফ নজরুল, মানবজমিন পত্রিকার সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী, সাংবাদিক মাহফুজ উল্লাহ, নিউ এজ সম্পাদক নুরুল কবির, আইনজীবী ড. তুহিন মালিক ও সাংবাদিক গোলাম মোর্তোজাকে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ‘অবাঞ্ছিত’ ঘোষণা করা হয়েছে।
আজ শুক্রবার দুপুরে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে আয়োজিত কয়েকটি সংগঠনের কর্মসূচিতে এ ঘোষণা দেয়া হয়। এ ছাড়া ছাত্রলীগের অনলাইন প্রচারণার গ্রুপ সিপি গ্যাং তাদেরকে প্রতিহত করার আহ্বান জানিয়েছে।
রাজনৈতিক বিশ্লেষক ও ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. পিয়াস করিমের লাশ শহীদ মিনারে নেয়ার ঘোষণা দেয়ায় এই ৯ জনকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করা হয়। শহীদ মিনার চত্বরে আয়োজিত সমাবেশে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডের সভাপতি মেহেদী হাসান বলেন, ৯ জন এবং তাদের গংকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করা হয়েছে। তাদের সাথে যুক্ত যারা আছে তাদেরকেও পর্যায়ক্রমে চিহ্নিত করা হবে। এ বিষয়ে পরবর্তীতে আরো কর্মসূচি পালন করা হবে।
সমাবেশে বীরাঙ্গনাদের মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে স্বীকৃতি দেয়ায় সরকারকে অভিনন্দন জানানো হয়। সভায় বক্তারা বলেন, ভাষা আন্দোলন, মুক্তিযুদ্ধে শহীদ, বীর মুক্তিযোদ্ধা ও বীরাঙ্গনাদের আত্মত্যাগে অর্জিত দেশের সব শহীদ মিনার ও স্মৃতিসৌধের পবিত্রতা রক্ষার্থে ঘাতক-দালাল, মানবতাবিরোধী-যুদ্ধাপরাধী, দুর্নীতিবাজসহ সব গণশত্রুদের প্রতিহত করার প্রত্যয়ে এই সমাবেশের আয়োজন।
একই স্থানে সিপি গ্যাং নামে অপর একটি সংগঠন ৯ জনকে প্রতিহত করার আহ্বান জানিয়ে মানববন্ধন করেন। তাদের ব্যানারে ৯ জনের ছবির ওপর ক্রস চিহ্ন দেয়া ছিল। এ ছাড়া স্লোগান ৭১, প্রাণের একাত্তর, গণজাগরণ মঞ্চ ছাড়াও ছাত্রলীগ এবং কয়েকটি বাম ছাত্রসংগঠনের নেতাকর্মীরা অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন। কর্মসূচির মাঝামাঝি সময়ে একটি সম্মিলিত মানবন্ধনেরও আয়োজন করা হয়।
কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পিয়াস করিমের লাশ নেয়ার ঘোষণার পর ছাত্রলীগসহ বিভিন্ন বাম ছাত্রসংগঠন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি-কেন্দ্রিক কয়েকটি সংগঠন, গণজাগরণ মঞ্চের সরকার সমর্থক অংশ প্রতিবাদ জানায়। তারা লাশ নিয়ে যাওয়া হলে প্রতিরোধ করারও ঘোষণা দেয়।