সর্বশেষ সংবাদ :

কুমিল্লার তিতাসে আজও আ.লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ১০/১২; এলাকা থমথমে

Share Button

সূচিপত্র1

11c5nitas_photo_11.10.14

স্টাফ রিপোর্টারঃতিতাস
১৪ অক্টোবর ২০১৪।

কুমিল্লার তিতাস উপজেলায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে আ’লীগের দুই গ্রুপের মধ্যে তুমুল সংঘর্ষের ঘটনা আজ ও ঘটেছে। এতে উভয় গ্রুপের গুলিবিদ্ধসহ কমপক্ষে ১০/১২জন আহত হয়েছে। এসময় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে তিতাস থানা পুলিশ ও কুমিল্লা রিজার্ভ পুলিশ মোতয়ন করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে ।
ঘটনাটি ঘটে আজ সকালে উপজেলার কলাকান্দি বাজারে।

11c5nmurad_pic_02-e1410006079143-300x98

পুলিশ ও স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, উপজেলার কলাকান্দি ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি মোঃ হাবিবউল্লা বাহার ও আ’লীগ নেতা মোঃ ইব্রাহীম মিয়ার মধ্যে দীর্ঘ দিন যাবৎ এলাকার আধিপত্য বিস্তার নিয়ে বিরোধ চলে আসছে। এরই জের ধরে পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে আজ সকালে উভয় গ্রুপের লোকজন ভারি আগ্নেয়াস্ত্রসহ দেশীয় অস্ত্রে শস্ত্রে সজ্জিত হয়ে দুই গ্রুপই কলাকান্দি বাজারে ক্ষনে ক্ষনে মহড়া দেয়। খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পৌছলে, পুলিশের উপস্থিতিতেই উভয় গ্রুপের লোকজন সংঘর্ষে জড়িয়ে পরে। পুলিশ এসময় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে ফাঁকা গুলি ছুড়তে থাকে তারপরে পরিস্থিতি আরও আভনতি হলে কুমিল্লা রিজার্ভ পুলিশ মোতয়ন করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে।
এসময় ত্রিমুখি মুর্হুমুহু গুলির শব্দে প্রকম্পিত হয়ে উঠে কলাকান্দি বাজারসহ আশপাশের এলাকা। দোকনপাট বন্ধ করে দিগদিক ছুটাছুটি করতে থাকে দোকানি ও এলাকার লোকজন। সংঘর্ষে উভয় গ্রুপের ১০/১২ জন মারাক্ত আহত হয় অন্যদের স্থানীয় বিভিন্ন হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়।
এদিকে আজ সালে সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, কলাকান্দি বাজারের সকল দোকানপাট বন্ধ রয়েছে এবং উভয় গ্রুপই পুনরায় সংঘর্ষের আশঙ্কায় প্রস্তুতি নিয়ে অবস্থান করছে। যে কোন সময় আবারো রক্তক্ষয়ি সংর্ঘষের আশংঙ্কায় এলাকায় অতিরিক্ত রিজার্ভপুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এলাকায় এখন থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। এলাকার লোকজন জানান ব্যক্তিগত বিরোধ এখন দুই এলাকায় ছরিয়ে পরেছে। এ রিপোর্ট লেখার সময় সংঘর্ষ চলছে………….।
তিতাস থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তারেক মোহাম্মদ আব্দুল হান্নান বলেন, এক পক্ষ অন্য পক্ষকে গালমন্দ করা নিয়েই সংর্ঘষের সৃষ্টি হয়। পুলিশ ঘটনা নিয়ন্ত্রন করতে কুমিল্লা থেকে রিজার্ভ পুলিশ মোতয়ন করা হয়েছে। এব্যাপারে তিতাস থানায় মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। মামলা রুজুর পর আসামীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

Comments are closed.

Scroll To Top
Bangladesh Affairs