সর্বশেষ সংবাদ :

বিল দখল নিয়ে দু’পক্ষের সংঘর্ষে নবীগঞ্জে ১ ব্যক্তি খুন ,গ্রেফতার-৩

Share Button

10686636_699651620130904_3403943946644334564_n

স্টাফ রিপোর্টারঃ
১৪ অক্টোবর ২০১৪।

বিল দখল নিয়ে দু’পক্ষের সংঘর্ষে নবীগঞ্জে ১ ব্যক্তি খুন ,গ্রেফতার-৩

নবীগঞ্জে বিল দখল নিয়ে দু’গ্রামবাসীর সংঘর্ষ ও হামলায় গোপেন্দ্র সরকার (৫৫) নামে এক ব্যক্তিকে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়েছে। প্রাণ রক্ষার্থে গোপেন্দ্র সরকার অন্যের ঘরে ঢুকে আশ্রয় নেয়ার পরও প্রতিপক্ষের লোকজন ঘরে ঢুকে তাকে কুপিয়ে হত্যা করে। এ সময় বাড়ি ঘরে হামলা ও ভাংচুর করা হয়। এ ঘটনায় ৩ জনকে আটক করেছে পুলিশ। গতকাল সোমবার বেলা ২টার দিকে দীঘলবাক ইউনিয়নের বানিপাতা ও দৌলতপুর গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনাটি ঘটে।
সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে- বানিপাতা ও দৌলতপুর গ্রামের মধ্যবর্তী ধানুুুয়াজলা নামে একটি বিল রয়েছে। বিলটি বানিপাতা মৎস্যজীবি সমিতি লীজ গ্রহণ করে। দুই বছর ধরে সমিতি ফিসিং করে আসছে। এদিকে এ বিলটির জন্য দৌলতপুর গ্রামের লোকজনও লীজ গ্রহনে ইচ্ছুক ছিল। বানিপাতা মৎস্যজীবি সমিতি লীজ গ্রহণের পর দৌলতপুর গ্রামের মোতাহের মিয়া বাদী হয়ে আদালতে স্বত্ব মামলা দায়ের করেন। অপরদিকে বানিপাতা গ্রামের পরেশ চন্দ্র সরকারও মামলা দায়ের করেন। এরই মধ্যে গতকাল দৌলতপুর গ্রামের লোকজন বিলটি দখল করতে যায়। এ সময় বানিপাতা গ্রামের লোকজন বাধা দিলে সংঘর্ষের সূত্রপাত হয়। সংঘর্ষে বানিপাতা গ্রামের লোকজন দৌলতপুর গ্রামের লোকজনের সাথে পেরে উঠতে না পারায় দৌড়ে পিছু হঠে। এ সময় দৌলতপুুর গ্রামের লোকজন বানিপাতা গ্রামের লোকজনকে পিছুু ধাওয়া করে বাড়ি ঘরে উঠে আক্রমন চালায়। তাদের আক্রমন থেকে বাচতে গোপেন্দ্র সরকার পার্শ্ববর্তী করুনা সরকারের বাড়িতে আশ্রয় নেন। এ সময় প্রতিপক্ষের লোকজন করুনা সরকারের ঘরে ঢুকে গোপেন্দ্র সরকারকে উপর্যুপরী কুপিয়ে ক্ষতবিক্ষত করে চলে যায়। পরে গোপেন্দ্র সরকারকে উদ্ধার করে সিলেট মেডিকেলে নিয়ে যাওয়ার সময় তার মৃত্যু ঘটে। এছাড়া আক্রমনকারীদের হামলায় বেশ কয়েকজন আহত হয়েছে। এদের মধ্যে শিপন সরকার (২৫), অনিল সরকার (৫০), গোপাল সরকার (২২), মায়া রানী সরকার ও স্বরজিনি সরকার (৭০)কে সিলেট মেডিকেলে প্রেরণ করা হয়।
এদিকে এ খবর পেয়ে সহকারী পুলিশ সুপার নাজমুল ইসলাম ও নবীগঞ্জ থানার ওসি লিয়াকত আলীর নেতৃত্বে একদল পুলিশ গতকালই অভিযান চালিয়ে ৩ জনকে আটক করে। এরা হচ্ছে-দৌলতপুর গ্রামের আরশ আলী (৩০), জিয়াউর রহমান (৩২) ও মোশাররফ হোসেন (২৮)।
এ ব্যাপারে নবীগঞ্জ থানার ওসি লিয়াকত আলী জানান, যে কোন পরিস্থিতি মোকাবেলায় ওই গ্রামে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। বর্তমানে ওই গ্রামে শান্তি অবস্থা বিরাজ করছে

Comments are closed.

Scroll To Top
Bangladesh Affairs