সর্বশেষ সংবাদ :

সিপিএ’র চেয়ারপারসন নির্বাচিত হলেন স্পিকার

Share Button

44912_f4

রিপোর্টঃ-মোঃ সফিকুর রহমান সেলিম
ঢাকা, ১০ অক্টোবর ২০১৪।

কমনওয়েলথ পার্লামেন্টারি এসোসিয়েশন (সিপিএ)-এর নির্বাচনে ৭০ ভোট পেয়ে চেয়ারপারসন পদে জয়লাভ করেছেন স্পিকার ড. শিরিন শারমিন চৌধুরী। ৩ বছর মেয়াদি এই পদে বাংলাদেশের স্পিকারের একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন ক্যারিবীয় অঞ্চলের কেইম্যান আইল্যান্ডসের স্পিকার জুলিয়ানা ও’কনর। তিনি পেয়েছেন ৬৭টি ভোট। স্পিকারের সফরসঙ্গী ও তার পিএস কামাল বিল্লাহ গতকাল রাতে টেলিফোনে মানবজমিনকে এ তথ্য জানান। ক্যামেরুনের রাজধানী ইয়াউনদে’তে গতকাল এ পদে নির্বাচন হয়। ৩৫ সদস্যের নির্বাহী কমিটির নির্বাচনে প্রথম বাংলাদেশী হিসেবে চেয়ারপারসন পদে জয়লাভ করলেন স্পিকার। সিপিএ’র এবারের ৬০তম সম্মেলনটি বিশেষ গুরুত্ব বহন করছে বলে জানিয়েছে সংসদ সচিবালয়। গত ৭ই আগস্ট শিরিন শারমিন চৌধুরী মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। তার মনোনয়নপত্রে প্রস্তাবক হিসেবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজেই স্বাক্ষর করেছেন। আর সমর্থক হিসেবে স্বাক্ষর করেছেন ভারতীয় লোকসভার স্পিকার সুমাত্রা মহাজন ও সিঙ্গাপুরের স্পিকার হালিমা ইয়াকুব। কমনওয়েলথভুক্ত দেশগুলোর গণতন্ত্র, সুশাসন ও মানবাধিকার প্রতিষ্ঠায় কাজ করে থাকে সিপিএ। ১৯১১ সালে এই প্রতিষ্ঠানটির যাত্রা শুরু হয়। বাংলাদেশ সিপিএ’র সদস্যপদ লাভ করে ১৯৭৩ সালে। বর্তমানে ৫৩টি দেশের ১৭৫টি পার্লামেন্ট এই এসোসিয়েশনের সদস্য। গত ২রা অক্টোবর সিপিএ’র ৬০তম সম্মেলন শুরু হয়। এতে স্পিকারের নেতৃত্বে ৫ সদস্যের প্রতিনিধি দল অংশ নিচ্ছেন। প্রতিনিধি দলে আছেন- হুইপ মো. শহীদুজ্জামান সরকার, সংসদ সদস্য ইমরান আহমেদ, সাগুফতা ইয়াসমিন ও ওয়ারেসাত হোসেন বেলাল। আগামীকাল ৩৫ সদস্যবিশিষ্ট নতুন নির্বাহী কমিটির দায়িত্ব গ্রহণের মধ্য দিয়ে এই সম্মেলন শেষ হবে। সংশ্লিষ্টরা জানান, মিলেনিয়াম ডেভেলপমেন্ট গোলস (এমডিজি) অর্জন, জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর প্রশংসনীয় ভূমিকা, এন্টি নিউক্লিয়ার চুক্তিতে স্বাক্ষরকারী দেশ হিসেবে নিরস্ত্রীকরণের পক্ষে দৃঢ় অবস্থান, ক্লাইমেট চেঞ্জ ইস্যুতে নেতৃত্বের ভূমিকা এবং নারীর ক্ষমতায়নে অনুসরণযোগ্য সফলতার কারণে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে বাংলাদেশ আজ বিশেষ মর্যাদার আসনে প্রতিষ্ঠিত। সিপিএ’র সদস্য রাষ্ট্রগুলোর সামনে এই অর্জনগুলো ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে। সিপিএ’র বর্তমান চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন বৃটিশ পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ হাউজ অব কমন্সের এমপি স্যার অ্যালান হ্যাসেলহার্টস। এর আগে ১৯৮৪-৮৭ মেয়াদে ভারতের এমপি বাল রাম ঝাকার এবং ২০০৫-২০০৮ মেয়াদে পশ্চিমবঙ্গের এমএলএ হাশিম আবদুল হালিম সিপিএ’র চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করেন। আর বাংলাদেশের বর্তমান প্রেসিডেন্ট মো. আবদুল হামিদ ডেপুটি স্পিকার থাকাকালে সিপিএ নির্বাহী কমিটির সদস্য পদে দায়িত্ব পালন করেন।

Comments are closed.

Scroll To Top
Bangladesh Affairs