সর্বশেষ সংবাদ :

বঙ্গোপসাগরে হুদহুদ: এগোচ্ছে উত্তর-পশ্চিমে

Share Button
hudhud_157290
রিপোর্টঃ-মোঃ সফিকুর রহমান সেলিম
ঢাকা, ১০ অক্টোবর ২০১৪।
আন্দামান সাগর থেকে বঙ্গোপসাগরে ঢুকে পড়েছে ঘূর্ণিঝড় হুদহুদ। ঘণ্টায় ১৬ কিলোমিটার বেগে এটি উত্তর-পশ্চিম দিকে এগোচ্ছে। ভারতের আন্দামানে সর্বোচ্চ ১০০ কিলোমিটার বেগে হাওয়া বইতে শুরু করেছে। সেখানে থেমে গেছে যান চলাচল। বন্ধ করে দেয়া হয়েছে বিদ্যুৎসেবা।
বাংলাদেশ আবহওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, পূর্ব মধ্যবঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন দক্ষিণ-পূর্ব বঙ্গোপসাগর এলাকায় অবস্থানরত প্রবল ঘূর্ণিঝড় হুদহুদ সামান্য পশ্চিম-উত্তরপশ্চিম দিকে সরে গিয়ে বর্তমানে পূর্ব মধ্যবঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন পশ্চিম মধ্যবঙ্গোপসাগর এলাকায় অবস্থান করছে।
ঘূর্ণিঝড়টি বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টায় চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দর থেকে ৯৯০ কিলোমিটার দক্ষিণ-দক্ষিণপশ্চিমে, কক্সবাজার সমুদ্রবন্দর থেকে ৯০৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-দক্ষিণপশ্চিমে, মংলা সমুদ্রবন্দর থেকে ৯৩০  কিলোমিটার দক্ষিণে এবং পায়রা সমুদ্রবন্দর থেকে ৯১০ কিলোমিটার দক্ষিণে অবস্থান করছিল। এটি আরো ঘনীভূত হয়ে পশ্চিম-উত্তরপশ্চিম দিকে অগ্রসর হতে পারে।
ঘূর্ণিঝড় কেন্দ্রের ৬৪  কিলোমিটারের মধ্যে বাতাসের একটানা সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘণ্টায় ৯০ কিলোমিটার, যা দমকা অথবা ঝোড়ো হাওয়ার আকারে ১১০ কিলোমিটার পর্যন্ত বৃদ্ধি পাচ্ছে। ঘূর্ণিঝড়-কেন্দ্রের কাছে সাগর বিক্ষুব্ধ রয়েছে। আবহাওয়া অধিদপ্তরের বিশেষ বুলেটিনে চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে ২ নম্বর দূরবর্তী হুঁশিয়ারি সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে। উত্তর বঙ্গোপসাগর ও গভীর সাগরে অবস্থানরত মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারগুলোকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত উপকূলের কাছাকাছি থেকে সাবধানে চলাচলা করতে বলা হয়েছে। সেই সঙ্গে তাদের গভীর সাগরে বিচরণ না করার জন্য বলা হচ্ছে।
দিল্লির আবহাওয়া দফতরের বরাতে জানা গেছে, বৃহস্পতি ও শুক্রবার আরো দুই দফায় শক্তি বাড়িয়ে ঘূর্ণিঝড়টি প্রথমে তীব্র ঘূর্ণিঝড় এবং তারপর প্রবল ঘূর্ণিঝড় আকারে রোববার দুপুর নাগাদ তা উপকূলে আছড়ে পড়তে পারে।
ভারতের আলিপুর আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, এখন পর্যন্ত যে গতি-প্রকৃতি, তাতে শুক্রবার থেকে কলকাতা ও আশপাশের আকাশ মেঘলা হবে। শনি ও রোববার মাঝারি থেকে ভারি বৃষ্টিপাতেরও সম্ভাবনা রয়েছে।

Comments are closed.

Scroll To Top
Bangladesh Affairs